শুক্রবার, ২৩শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১০ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

নষ্ট হলো ২ কোটি টাকার শুঁটকি

নষ্ট হলো ২ কোটি টাকার শুঁটকি

ঝড়ে ২০ ফিসিং ট্রলার ডুবি

  • বঙ্গোপসাগরে ঝড়ের কবলে পড়ে ২০ ফিসিং ট্রলার ডুবি
  • দুই জেলে নিখোঁজ 

বঙ্গোপসাগরে ঝড়ের কবলে পড়ে ২০ ফিসিং ট্রলার ডুবির ঘটনা ঘটেছে। এতে প্রায় ২ কোটি টাকার শুটকি মাছ নষ্ট হয়েছে। ফিসিং ট্রলার ডুবির দূর্ঘটনায় শাহিনুর ও মোতাচ্ছির নামে দুই জেলে নিখোঁজ রয়েছেন। নিখোঁজ জেলেদের বাড়ি বাগেরহাটের রামপাল উপজেলায়। গত শুক্রবার রাত ১০ টায় বঙ্গোপসাগরের দুবলার চর থেকে ৪৫ কিলোমিটার গভীর সাগরে এ ঘটনা ঘটে। নিখোঁজ জেলেদের সন্ধানে কোস্টগার্ডের দুটি জাহাজসহ দুবলার ১০০ ট্রলার উদ্ধার অভিযান চালাচ্ছে। বাগেরহাটের পূর্ব সুন্দরবনের বিভাগের শরণখোলা রেঞ্জের দুবলা ফরেষ্ট ষ্টেশনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রহ্লাদ চন্দ্র রায় এবং দুবলা ফিশারম্যান গ্রুপের সভাপতি কামাল উদ্দিন আহমেদ এতথ্য নিশ্চিত করেছেন। 

সুন্দরবন বিভাগ জানায়, প্রতিবছরের ন্যায় এবারও গত নভেম্বর থেকে সুন্দরবনের দুবলার চরে শুরু হয়েছে শুঁটকি মাছ আহরণ মৌসুম। দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে দুবলার চরের অস্থায়ী শুঁটকী পল্লীতে সামুদ্রিক মাছ ধরতে আসেন প্রায় ৩০ হাজার জেলে। এসব জেলেরা দুবলার চরসহ আটটি চরে অস্থায়ী বসতি গড়ে তোলেন। সেখানে থেকেই তারা বঙ্গোপসাগরে মাছ ধরেন। গত শুক্রবারও মাছ ধরতে তারা সাগরে যান। কিন্তু হঠাৎ ঝড়ের কবলে পড়ে দুবলার চরের ৪৫ কিলোমিটার গভীর সাগরে দূর্ঘটনার শিকার হয় ২০ টি ফিসিং ট্রলার। এ সময় দুবলায় আটটি এবং তার পাশ্ববর্তী এলাকা আলোরকোল এলাকায় আরও ১২ টি ফিশিং ট্রলার ডুবে যায়। পরে অন্য ট্রলারের সাহায্যে ১৫৪ জেলে ফিরে আসতে পারলেও বাগেরহাটের রামপালের দূর্গাপুর গ্রামের শাহিনুর ও ইসলামাবাদ গ্রামের মোতাচ্ছির নিখোঁজ রয়েছেন বলে জানান দুবলা ফিশারম্যান গ্রুপের সভাপতি কামাল উদ্দিন আহমেদ জানান। নিখোঁজ জেলেদের সন্ধানে কোস্টগার্ডের দুটি জাহাজসহ দুবলার ১০০ ট্রলার উদ্ধার অভিযান চালাচ্ছে। এ রিপোর্ট পাঠানো পর্যন্ত নিখোঁজ দুই জেলের কোনো সন্ধান মেলেনি। এদিকে দূর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ায় দুবলার চরের প্রায় দুই কোটি টাকার শুটকি মাছ নষ্ট হয়েছে বলেও জানিয়েছেন দুবলা ফরেষ্ট ক্যাম্পের ওসি প্রহ্লাদ চন্দ্র রায়।

Print Friendly, PDF & Email
আরও পড়ুনঃ  করোনার ক্ষতি পুষিয়ে নেয়া সম্ভব: টিপু মুন্সি

সংবাদটি শেয়ার করুন