রবিবার, ২৫শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১২ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

বন্যায় আমন-আউশসহ ফসলের ব্যাপক ক্ষতি

বন্যায় আমন-আউশসহ ফসলের ব্যাপক ক্ষতি

বৃষ্টি ও বন্যায় হবিগঞ্জে ১৩ হাজার হেক্টর বোনা আমন ও ২ হাজার হেক্টর আউশ ধানের জমি তলিয়ে গেছে। এতে চরম ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন কৃষক। তাছাড়া বন্যায় কবলিত হয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ৪শ’ হেক্টর সবজি ক্ষেত। এভাবে বন্যার পানি বাড়া অব্যাহত থাকলে আরো জমি তলিয়ে যেতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন স্থানীয় বাসিন্দারা।

জানা যায়, গত কয়েকদিন ধরে বৃষ্টি ও বন্যায় হবিগঞ্জ জেলার পাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া প্রধান নদীগুলোর পানি ক্রমেই বৃদ্ধি পাচ্ছে। এভাবে পানি বৃদ্ধি থাকলে বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত হওয়ার শঙ্কা জানিয়েছে পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো)।

এদিকে, জেলার ৩ উপজেলার অধিকাংশ এলাকায় বন্যা দেখা দিয়েছে।  প্রশাসনের হিসেবে পুরো জেলায় বন্যা কবলিত পরিবারের সংখ্যা হাজার ছাড়িয়েছে। তলিয়ে গেছে ১৫ হাজার হেক্টর জমির ধান ও ৪শ হেক্টর সবজি ক্ষেত।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী মিনহাজ আহমেদ শোভন জানান, নবীগঞ্জ উপজেলার পাহারপুর ও রাধাপুরে কুশিয়ারা নদীর পানি বাঁধের ১ ফুট ৬ ইঞ্চি ওপর দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে। এতে যে কোনো সময় বাঁধ ভেঙ্গে যেতে পারে। যে কারণে বাঁধ রক্ষায় সাড়ে ৪ হাজার বস্তা মাটি দেয়া হয়েছে। খোয়াই নদীতে একদিনে তিন মিটার পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। কুশিয়ারা নদীতে প্রতি ৩ ঘণ্টায় ৫ সেন্টিমিটার বৃদ্ধি পাচ্ছে। এভাবে বাড়লে বিস্তীর্ণ এলাকা তলিয়ে যাবে।

হবিগঞ্জ জেলা জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের ভারপ্রাপ্ত উপ-পরিচালক আশেক পারভেজ জানান, বৃষ্টি ও বন্যায় জেলার ১৩ হাজার হেক্টর বোনা আমন ও ২ হাজার হেক্টর আউশ ধানের জমি তলিয়ে গেছে। এতে কৃষকদের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। বন্যায় কবলিত হয়ে ৪শ হেক্টর সবজি ক্ষেত নষ্ট হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
আরও পড়ুনঃ  প্রজ্ঞাপন জারি করে ১১৮১ মুক্তিযোদ্ধার গেজেট বাতিল

সংবাদটি শেয়ার করুন