সোমবার, ২০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ডিএসইতে বৃদ্ধি সিএসইতে হ্রাস

বছরের শুরুতেই সূচক উত্থান

পুজিবাজারে লেনদেন সূচক——-

  • দুই স্টকে বেড়েছে ৪৪ শতাংশ প্রতিষ্ঠানের
  • কমেছে ৪৬ শতাংশের শেয়ার-ইউনিট দর

    দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) প্রধান সূচক (ডিএসইএক্স) চলতি বছরের প্রথম ও দ্বিতীয় কার্যদিবস মতো তৃতীয় দিন গতকাল মঙ্গলবারেও উত্থানে লেনদেন শেষ হয়েছে। অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) প্রধান সূচক (সিএএসপিআই) চলতি বছরের প্রথম দুই কার্যদিবস মতো তৃতীয় দিনেও উত্থানে লেনদেন শেষ হয়েছে। এদিন দুই স্টকে বেড়েছে ৪৪ শতাংশ ও কমেছে ৪৬ শতাংশ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দর। আগের কার্যদিবস থেকে এদিন ডিএসইর কমলেও সিএসইর বেড়েছে।

দুই স্টকের ৪৪ দশমিক শূন্য ৬ শতাংশ কোম্পানির শেয়ার দর উত্থান হয়েছে। এর মধ্যে ডিএসইর ৪৪ দশমিক ৩০ শতাংশ এবং সিএসইর ৪৪ দশমিক ৫২ শতাংশ কোম্পানির শেয়ার ও ইউনিট দর উত্থান হয়। ৪৫ দশমিক ৭৯ শতাংশ কোম্পানির শেয়ার দর পতন হয়েছে। এর মধ্যে ডিএসইর ৪৭ দশমিক ৭৪ শতাংশ এবং সিএসইর ৪৩ দশমিক ৮৩ শতাংশ কোম্পানির শেয়ার ও ইউনিট দর পতন হয়েছে। কোম্পানিগুলোর শেয়ার দর এই ধরনের বাড়া-কমাকে স্বাভাবিক হিসেবে দেখছেন বিনিয়োগকারীরা।

ডিএসইতে টেলিকমিউনিকেশন খাতের শতভাগ কোম্পানির শেয়ার দর উত্থান হয়েছে। এই স্টকের ওযুধ রসায়ন, বীমা, আইটি, সিমেন্ট, পেপার, চামড়া এবং সেবা আবাসন খাতের বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ার দর উত্থান হয়েছে। এদের মধ্যে ওযুধ রসায়ন খাতের ৩২টির মধ্যে ২৩টি, বীমা খাতের ৫৮টির মধ্যে ৪৩টি, আইটি খাতের ১১টির মধ্যে ৮টি, সিমেন্ট খাতের ৭টির মধ্যে ৪টি, পেপার খাতের ৬টির মধ্যে ৪টি, চামড়া খাতের ৬টির মধ্যে ৪টি এবং সেবা আবাসন খাতের ৪টির মধ্যে ৩টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার দর উত্থান হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ  চাকরির পেছনে না ছুটে উদ্যোক্তা হওয়ার আহবান প্রধানমন্ত্রীর

ডিএসইতে ব্যাংক, বস্ত্র, ইঞ্জিনিয়ারিং, খাদ্য আনুষঙ্গিক, পাট, জ্বালানি শক্তি এবং ভ্রমণ অবসর খাতের বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ার দরে পতন হয়েছে। এদের মধ্যে ব্যাংক খাতের ৩২টির মধ্যে ১৮টি, বস্ত্র খাতের ৫৮টির মধ্যে ৩৭টি, ইঞ্জিনিয়ারিং খাতের ৪২টির মধ্যে ২৩টি, খাদ্য আনুষঙ্গিক খাতের ২০টির মধ্যে ১২টি, পাট খাতের ৩টির মধ্যে ২টি, জ্বালানি শক্তি খাতের ২৩টির মধ্যে ১৫টি এবং ভ্রমণ অবসর খাতের ৪টির মধ্যে ৩টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার দর পতন হয়েছে।

বছরের শুরুর প্রথম দুই কার্যদিবস মধ্যে প্রথমদিন দুই স্টকের ৭৮ শতাংশ, দ্বিতীয়দিন সোমবার ৬০ শতাংশ এবং তৃতীয়দিন গতকাল মঙ্গলবার ৪৪ শতাংশ কোম্পানির শেয়ার দর উত্থান হয়েছে। বছরের শুরু থেকেই পুঁজিবাজারের কোম্পানির শেয়ার দর বাড়া, সূচক উত্থানসহ হাজার কোটি টাকা লেনদেনকে কেন্দ্র করে এক ধরনের ইতিবাচক পরিবেশ তৈরি হয়েছে। যা গতিশীল পুঁজিবাজারের জন্য খুবই জরুরি বলে মনে করছেন বিজ্ঞ বিনিয়োগকারীরা।

দুই স্টক এক্সচেঞ্জ সূত্রমতে, ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ১৮২ কোটি ১৮ লাখ টাকা। আগের কার্যদিবস সোমবার লেনদেন হয়েছিল ১ হাজার ৩১৪ কোটি ১৪ লাখ টাকার শেয়ার। টাকার অংকে ডিএসইতে লেনদেনের শীর্ষ কোম্পানি হলো- বেক্সিমকো, বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশন, ফরচুন সুজ, একটিভ ফাইন, লাভেলো, জেনেক্স ইনফোসিস, পাওয়ার গ্রিড, সোনালী পেপার, ওরিয়ন ফার্মা, জিএসপি ফাইন্যান্স।

ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ৩৭৭টি কোম্পানির মধ্যে শেয়ার ও ইউনিটের দর বেড়েছে ১৬৭টির, কমেছে ১৮০টির এবং পরিবর্তন হয়নি ৩১টির। ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ১০ দশমিক ৬৯ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬ হাজার ৮৯২ দশমিক ৯৯ পয়েন্টে। ডিএসইএস বা শরিয়াহ সূচক ৪ দশমিক ৭৩ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ১ হাজার ৪৫৬ দশমিক ১২ পয়েন্টে। এছাড়া ডিএসই-৩০ সূচক ৪ দশমিক ৯২ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ২ হাজার ৫৭১ দশমিক ১৮ পয়েন্টে।

আরও পড়ুনঃ  সাংস্কৃতিক কেন্দ্র এখন কাপড়ের গুদাম!

অপর পুঁজিবাজার সিএসইতে গতকাল লেনদেন হয়েছে ৩৫ কোটি ৭১ লাখ টাকা। আগের কার্যদিবস সোমবার লেনদেন হয়েছিল ২৮ কোটি ৬৯ লাখ টাকার শেয়ার। সিএসইতে লেনদেন হওয়া ২৯২টি কোম্পানির মধ্যে শেয়ার ও ইউনিট দর বেড়েছে ১৩০টির, কমেছে ১২৮টির এবং পরিবর্তন হয়নি ৩৪টির। টাকার অংকে সিএসইতে লেনদেনের শীর্ষ কোম্পানি- বেক্সিমকো, আরডি ফুড, বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশন, পাওয়ার গ্রিড, পেনিনসুলা, একটিভ ফাইন, রিং সাইন, প্রান, আইএফআইসি ব্যাংক, ওয়ান ব্যাংক।

সিএসইর প্রধান সূচক সিএএসপিআই ২ দশমিক ৫৬ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ২০ হাজার ১৫৪ দশমিক ৫ পয়েন্টে। এছাড়া সিএসই-৫০ সূচক ৩ দশমিক ৩৯ পয়েন্ট, সিএসই-৩০ সূচক ৫৭ দশমিক ২৪ পয়েন্ট, সিএসসিএক্স সূচক দশমিক ৯৪ পয়েন্ট ও সিএসআই সূচক দশমিক শূন্য ৯ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ১ হাজার ৫০১ দশমিক ৪০ পয়েন্টে, ১৪ হাজার ২৮ দশমিক ৫৫ পয়েন্টে, ১২ হাজার ১০৪ দশমিক ২৫ পয়েন্টে ও ১ হাজার ২৪২ দশমিক ৯৪ পয়েন্টে।

Print Friendly, PDF & Email

সংবাদটি শেয়ার করুন