সোমবার, ১৭ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৩রা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জয়পুরহাটে ৩ মাসে ১৩৭ ভ্রাম্যমান আদালত

জয়পুরহাটে ৩ মাসে ১৩৭ ভ্রাম্যমান আদালত

আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে ২০২১ সালের গতমাসে ৩ মাস জয়পুরহাট জেলা প্রশাসকের উদ্যোগ ১৩৭ ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হয়েছে। জেলার বিভিন্ন জয়গায় এ অভিযান চালানো হয়। এ সময় ২৮২ মামলা দায়ের করা হয়। অর্থদন্ড আদায় করা হয় ৮ লাখ ৪৬ হাজার ৯৮০ টাকা। জেলা প্রশাসকের এমন উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন জয়পুরহাট এলাকাবাসী।

জয়পুরহাট জেলা প্রশাসকের জুডিশিয়াল মুন্সীখানা শাখার দেয়া তথ্য অনুযায়ী, ২০২১ সালের অক্টোবর মাসে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয় ৪৯টি। এ সময় মামলা দায়ের করা হয় ১০৪টি। দণ্ডিতব্যক্তি ১০৪ জন। যার মধ্যে কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে ৩০ জনকে। অর্থদণ্ড দেয়া হয়েছে ৭৪ জনকে। জরিমানা আদায় করা হয় ৩ লাখ ৪ হাজার ৮৮০ টাকা। নভেম্বর মাসে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয় ৪৫টি। এসময় মামলা দায়ের করা হয় ৯৩টি। দণ্ডিতব্যক্তি ৯৩ জন। যার মধ্যে কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে ২২ জনকে। অর্থদণ্ড দেয়া হয়েছে ৭১ জনকে। জরিমানা আদায় করা হয় ১ লাখ ৬৯ হাজার ৪০০ টাকা।

ডিসেম্বর মাসে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয় ৪৩টি। এসময় মামলা দায়ের করা হয় ৮৫টি। দণ্ডিতব্যক্তি ৮৫ জন। যার মধ্যে কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে ২০ জনকে। অর্থদণ্ড দেয়া হয়েছে ৬৫ জনকে। জরিমানা আদায় করা হয় ৩ লাখ ৭২ হাজার ৭০০ টাকা।

জয়পুরহাট সদর এলাকার শিক্ষার্থী আব্দুর রহিম জানান, জেলা প্রশাসকের নিয়মিত অভিযানে জেলার আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি বেশ ভালো। মানুষ স্বাভাবিকভাবেই চলাচল করতে পারছে। পাশাপাশি এ ধরনের অভিযানের কারণে মানুষ নানান ধারনের প্রতারণার হাত থেকে বাঁচছে।

আরও পড়ুনঃ  বারি'তে জৈব বালাইনাশক প্রযুক্তি নিয়ে দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত

জয়পুরহাট জেলা প্রশাসকের এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্টেট রিফাতুল ইসলাম বলেন, আমরা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সব সময় সাধারণ মানুষদের নিরলস সেবা দেয়ার চেষ্টা করে যাই। আগামীতেও জেলার আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে এ ধরনের অভিযান অব্যহত থাকবে।

আনন্দবাজার/এম.আর

Print Friendly, PDF & Email

সংবাদটি শেয়ার করুন