শুক্রবার, ২৩শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১০ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

সড়কের দস্যু অবৈধ ট্রাক্টর

সড়কের দস্যু অবৈধ ট্রাক্টর

চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার বিভিন্ন সড়কে কাক ডাকা ভোর থেকে গভীর রাত অবধি দাপিয়ে বেড়াচ্ছে অবৈধযান ট্রাক্টর। অবৈধ ট্রাক্টরে অরক্ষিতভাবে মাটি-বালু পরিবহনের ফলে এসব সড়কে ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করতে হচ্ছে ছোট বড় যানবাহন চালক সহ সর্বসাধারণের। একই সঙ্গে স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে পড়তে হচ্ছে কোমলমতি শিশুসহ বয়োবৃদ্ধদের।    

উপজেলার বিভিন্ন ইট ভাটায় ইট পোড়ানোর মৌসুম শুরুর আগে অবৈধযান ট্রাক্টরগুলো অদক্ষ চালকদের হাতে পড়ে। আর এসব চালকেরা উপজেলার বিভিন্ন সড়ক দাপিয়ে বেড়াচ্ছে। অরক্ষিতভাবে অবৈধ ট্রাক্টরগুলো মাটি-বালু পরিবহনের ফলে মাটি-বালুর কনা বাতাসে ভাসছে। সেসব মাটি-বালুর কনাগুলো বাতাসের সঙ্গে মিশে শ্বাসপ্রশ্বাসের সঙ্গে মানুষের শরীরে প্রবেশ করছে। যার ফলে শিশুসহ বয়োবৃদ্ধরা বেশি স্বাস্থ্যঝুঁকিতে পড়তে পারে বলে চিকিৎসকদের ধারণা। এছাড়া রাতের আধারে উপজেলার বিভিন্ন মাঠ ও ভৈরব নদের মাটি বহন করছে অবৈধ ট্রাক্টরগুলো। ওই সব অবৈধ ট্রাক্টরের বিকট শব্দে রাতে নিদ্রায় যেতে পারছে না সাধারণ জনগণ। প্রভাব পড়ছে শিক্ষার্থীদের পড়া লেখায়।

সচেতন মহল বলছেন, ট্যাক্টর বেশীরভাগ সময় ব্যবহার হচ্ছে মাটি-বালু পরিবহনের কাজে। উপজেলার বিভিন্ন স্থান থেকে মাটি বোঝায় করে দ্রুত গতিতে পৌঁছে দিচ্ছে নিদিষ্ট গন্তব্যে। মাটি বহনের সময় গ্রামীণ সড়ক-উপজেলার প্রধান সড়কগুলো মারাত্বকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে প্রতিনিয়ত। আর এসব অবৈধযান থেকে সড়কে পড়া মাটির স্তুপের কারণে জনদুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে সর্বসাধারণের। এসব যেন দেখার কেউ নেই! জনদুর্ভোগ নিরসন ও স্বাস্থ্য ঝুঁকি কমিয়ে আনতে সংশ্লিষ্টদের দৃষ্টি দেয়া প্রয়োজন।

স্বাস্থ্য ঝুঁকির ব্যাপারে দামুড়হুদা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা আবু হেনা মোহাম্মদ জামাল শুভ বলেন, মাত্রাতিরিক্ত শব্দদূষণ মানুষের জন্য নিরব ঘাতক। ২০ হাজার হার্যের উপর শব্দ মানুষের জন্য মারাত্মক ঝুঁকি। প্রতিনিয়ত অতিরিক্ত মাত্রায় শব্দদূষণ হলে মানুষের শ্রবণ শক্তি কমে যাবে। যার ফলে দেশ ও জাতির উপর প্রভাব পড়তে পারে।

আরও পড়ুনঃ  শেরপুরে ৬০ হাজার মাস্ক দিলো ব্র্যাক

তিনি আরও বলেন, মানুষের শ্বাসপ্রশ্বাসের মাধ্যমে দেহে প্রতিনিয়ন ধুলা-বালু প্রবেশ করতে থাকলে ফুসফুসে মারাত্মক ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এক সময় দেখা যাবে ফুসফুস তার কার্যক্ষমতা হারাবে। এছাড়াও ধুলা-বালু শরীরে প্রবেশ করলে অ্যালাজি, অ্যাজমা, সর্দি-কাশি জাতীয়রোগ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তাছাড়া মানুষের স্কিনে অতিমাত্রায় ধুলা-বালু পড়লে স্কিন তার স্বাভাবিক ক্ষমতা হারিয়ে ফেলবে এবং বিভিন্ন প্রকার চর্ম জাতীয় রোগ বালায় হবে। 

দামুড়হুদা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফেরদৌস ওয়াহিদ বলেন, নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করে অবৈধ ট্রাক্টরগুলো আটক করা হচ্ছে। ট্রাক্টর মালিকপক্ষ গণউপদ্রব করবে না মর্মে লিখিত দিয়ে ট্রাক্টরগুলো ছাড়িয়ে নিয়ে যাচ্ছে।

জানতে চাইলে দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সানজিদা বেগম বলেন, সড়কে অবৈধ ট্রাক্টর চলাচল আইন পরিপন্থী। জেলা প্রশাসন থেকে নিয়মিত অভিযান পরিচালিত হচ্ছে। শিগগিরই  উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে আইনগত ব্যবস্থাগ্রহণ করা হবে।

Print Friendly, PDF & Email

সংবাদটি শেয়ার করুন