রবিবার, ২৫শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১২ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

নিয়মিত নামাজ পড়ে বাইসাইকেল জিতল ২৩০ শিশু-কিশোর

নিয়মিত নামাজ পড়ে বাইসাইকেল জিতল ২৩০ শিশু-কিশোর

টানা ৪০ দিন মসজিদে নামাজ আদায় করে বাইসাইকেল উপহার পেয়েছে ২৩০ জন শিশু-কিশোর। শিশু-কিশোরের মধ্যে ইসলামি মূল্যবোধ জাগ্রত করতে ও দ্বীনি শিক্ষার প্রতি আগ্রহ বাড়াতে রাজধানীর মিরপুরে ডিওএইচএস কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ কর্তৃপক্ষ এই উদ্যোগ গ্রহণ করে।

শিশুদের মাঝে শুক্রবার (৪ নভেম্বর) এই পুরস্কার বিতরণ করা হয়। এছাড়াও সর্বনিম্ন ৩০ ওয়াক্ত নামাজ আদায়কারী শিশুদেরও স্মার্ট ওয়াচ উপহার দেওয়া হয়।

মিরপুর ডিওএইচএস কেন্দ্রীয় জামে মসজিদেরকর্তৃপক্ষের ঘোষণা পর স্বতস্ফুর্তভাবে প্রায় ৩৫২ জনেরও বেশি শিশু-কিশোর নিবন্ধন করেছিল। অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে ৪ বছরের শিশু থেকে ১৬ বছরের কিশোরেরাও ছিল। এর মধ্যে ২৩০ জন শিশু-কিশোর নিয়মিত ৪০ দিন মসজিদে এসে নামাজ আদায় করতে সক্ষম হয়।

গত বছরও এমন উদ্যোগ নেওয়া হয়েছিলো। মসজিদ কর্তৃপক্ষ দ্বিতীয়বারের মতো এই পুরস্কারের আয়োজন করলো। তবে, গত বছর মসজিদ কর্তৃপক্ষের এই উদ্যোগে ৯৩ জন শিশু-কিশোর টানা ৪০ দিন নামাজ আদায় করেছিল। এবার সেই সংখ্যা বেড়েছে প্রায় তিন গুণ।

‘এই উদ্যোগ সফল করতে সবচেয়ে বেশি কষ্ট করেছেন শিশুদের অভিভাবকরা, তারা বাচ্চাদের যেভাবে প্রস্তুত করে মসজিদে আসতে সহযোগীতা করেছেন তা সত্যিই প্রশংসনীয় এবং আমি আশাবাদী, বিগত দিনগুলোর মতো শিশুরা সামনের দিনগুলোতেও মসজিদে আসবে’ বলে জানান মিরপুর ডিওএইচএস-এর কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতিব ও হাফেজ মাওলানা মোশাররফ হোসেন।

অভিভাবকদের মত, টানা ৪০ দিন নামাজ আদায় করার উদ্যোগ অনেক প্রশংসনীয়। এমন উদ্যোগের ফলে আমাদের সন্তানেরা নিয়মিত মসজিদে আসার ফলে অনেক দ্বীনি বিষয় সঠিকভাবে শিখতে পেরেছে। শিশুদের মসজিদমুখী করতে দেশের প্রতিটি মসজিদ কমিটির এমন উদ্যোগ নেওয়া উচিত বলেও কেউ কেউ মত প্রকাশ করেন।

আরও পড়ুনঃ  দুর্যোগে আতঙ্ক নয়

আনন্দবাজার/কআ

Print Friendly, PDF & Email

সংবাদটি শেয়ার করুন