শনিবার, ২৪শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১১ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

বিউটিশিয়ানকে গণধর্ষণ: দুই বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র গ্রেপ্তার

বিউটিশিয়ানকে গণধর্ষণে দুই বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র গ্রেপ্তার

রাজধানীর ধানমন্ডিতে পাঁচ মাসের অন্তঃসত্ত্বা এক বিউটিশিয়ানকে গণধর্ষণের ঘটনায় বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় দুই ছাত্রকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গ্রেপ্তারকৃরা হলো, রিয়াদ (২৪) ও ইয়াসিন হোসেন সিয়াম। পুলিশের বক্তব্য এ দুজন সরাসরি জড়িত।

তেজগাঁও বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার কার্যালয়ে বৃহস্পতিবার (১৩ অক্টোবর) দুপুরে একটি সংবাদ সম্মেলন থেকে এ তথ্য জানানো হয়। এসময় তেজগাঁও বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিসি) এইচ এম আজিজুল হক জানান, আরও দুজনকে গ্রেপ্তারের অভিযান চলছে।

আজিজুল হক জানান, ধর্ষণের ঘটনায় গতকাল রাতে ভুক্তভোগীর স্বামী বাদী হয়ে শেরে বাংলা নগর থানায় মামলাটি দায়ের করেন। এই মামলায় চার জনকে আসামি করা হয়েছে। এ বিষয়ে পুলিশের তদন্ত চলমান রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, ভুক্তভোগী নারী পেশায় একজন বিউটিশিয়ান। আগে বিউটি পার্লারে কাজ করতেন তিনি। করোনা পরবর্তী সময়ে সেবা প্রদানের সুবিধার্থে ফেসবুকে নিজের একটি অনলাইন পেইজ খোলেন। তার কাছ থেকে ইতোপূর্বে সেবা নেওয়া পরিচিত এবং অনলাইনে যোগাযোগ করা নারীদের বাসায় গিয়ে সার্ভিস দিতেন তিনি। মঙ্গলবার বিকেলে ফোনে তেমনই একটি সেবা প্রদানের (ফেসিয়াল) অনুরোধ পান তিনি। তসলিমা নামে একজন ফোনটি করেছিলেন বলে ওই নারী জানিয়েছেন। তসলিমার ভাই পরিচয় দিয়ে রিয়াদ নামে একজনও তার সঙ্গে যোগাযোগ করেন।

সন্ধ্যায় শুক্রাবাদ এলাকায় পৌঁছালে রিয়াদ তাকে জানান তাদের বাসা মূল সড়ক থেকে কিছুটা ভেতরে। ওই নারী বাসায় পৌঁছালে তাকে তসলিমার জন্য অপেক্ষা করতে বলে রিয়াদ। এর কিছুক্ষণ পর রিয়াদ সিয়াম ও জিতু নামে তার দুই বন্ধুকে নিয়ে ঘরে প্রবেশ করে। তারপর ওই নারীকে ধর্ষণ করে। ধর্ষণ শেষে ওই নারীর মোবাইল ফোনটিও ছিনিয়ে নেয় তারা। তবে, ধর্ষকদের সাথে ওই নারীর কোনো পূর্বপরিচয় ছিল না বলেও জানান আজিজুল হক।

আরও পড়ুনঃ  কৃষি-মৎস্যখাতে অপার সম্ভাবনা

আনন্দবাজার/কআ

Print Friendly, PDF & Email

সংবাদটি শেয়ার করুন