মঙ্গলবার, ২১শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

অতি-প্রক্রিয়াজাত খাবারে হৃদরোগ-ক্যানসারসহ ৩২ ধরনের স্বাস্থ্যঝুঁকি: গবেষণা

অতি-প্রক্রিয়াজাত খাবারে হৃদরোগ-ক্যানসারসহ ৩২ ধরনের স্বাস্থ্যঝুঁকি গবেষণা

গবেষকরা জানিয়েছেন, আল্ট্রা-প্রসেসড ফুড (ইউপিএফ) বা অতি-প্রক্রিয়াজাত খাবার হৃদরোগ, ক্যানসার, টাইপ ২ ডায়াবেটিস, মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যা এবং অকাল মৃত্যুর উচ্চ ঝুঁকিসহ মানব স্বাস্থ্যের ৩২টি ক্ষতিকারক প্রভাবের সঙ্গে সরাসরি যুক্ত বলে গবেষণায় উঠে এসেছে।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ান এক প্রতিবেদনে বৃহস্পতিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) এ খবর জানিয়েছে।

আল্ট্রা-প্রসেসড ফুড নিয়ে এ গবেষণাটি এখন পর্যন্ত বিশ্বের সবচেয়ে বড় গবেষণা উল্লেখ করে দ্য গার্ডিয়ান এর প্রতিবেদনে বলা হয়, এসব আল্ট্রা-প্রসেসড ফুডের মধ্যে রয়েছে- সিরিয়াল (দানাদার খাবার), প্রোটিন বার, কোমল পানীয়, প্যাকেটজাত খাবার এবং ফাস্টফুড। বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্র ‍ও যুক্তরাজ্যের গড় খাদ্যের অর্ধেকেরও বেশি আল্ট্রা-প্রসেসড ফুড। বিশেষ করে অল্পবয়সী, দরিদ্র বা সুবিধাবঞ্চিত এলাকার বাসিন্দাদের খাদ্য তালিকার ৮০ শতাংশ আল্ট্রা-প্রসেসড ফুড।

বৈশ্বিক মেডিকেল জার্নাল বিএমজে-তে এই গবেষণার বিস্তারিত প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে। এতে গবেষকরা জানান, প্রায় ১০ মিলিয়ন মানুষের ওপর পরিচালিত এই গবেষণার ফল হিসেবে উচ্চ মাত্রার আল্ট্রা-প্রসেসড ফুড মানব স্বাস্থ্যের জন্য গুরুতর ক্ষতির কারণ হতে পারে, ফলে মানুষের খাদ্য তালিকা থেকে আল্ট্রা-প্রসেসড ফুডের পরিমাণ কমিয়ে আনার সুপারিশ করা হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের জনস হপকিন্স ব্লুমবার্গ স্কুল অব পাবলিক হেলথ, ইউনিভার্সিটি অব সিডনি এবং ফ্রান্সের সোরবোন ইউনিভার্সিটিসহ বিশ্বের বেশ কয়েকটি নেতৃস্থানীয় প্রতিষ্ঠানের বিশেষজ্ঞরা এই গবেষণায় জড়িত ছিলেন।

প্রকাশিত প্রতিবেদনের শেষে বলা হয়েছে, সামগ্রিকভাবে অকাল মৃত্যু, ক্যানসার ও মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যা, শ্বাসযন্ত্র, কার্ডিওভাসকুলার, গ্যাস্ট্রোইনটেস্টাইনাল এবং বিপাকীয় স্বাস্থ্য সমস্যাসহ মানব স্বাস্থ্যের ৩২টি ক্ষতিকারক প্রভাবের সঙ্গে আল্ট্রা-প্রসেসড ফুডের সরাসরি সম্পৃক্ততা পাওয়া গেছে।

আরও পড়ুনঃ  ওজন কমাতে খাবেন যেসব খাবার

বাজারে প্রচলিত প্যাকেটজাত খাবার ও স্ন্যাকস, কোমল পানীয়, চিনিযুক্ত সিরিয়াল এবং রেডি-টু-ইট বা প্রস্তুতকৃত খাবারসহ আল্ট্রা-প্রসেসড ফুড একাধিক শিল্প প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে যায় এবং প্রায়শই এগুলোতে রঙ, ইমালসিফায়ার, ফ্লেভার ও অন্যান্য উপাদান যোগ করা হয়। এসব পণ্যে অতিরিক্ত চিনি, চর্বি ও লবণ বেশি থাকলেও ভিটামিন এবং ফাইবার খুব একটা থাকে না বললেই চলে।

Print Friendly, PDF & Email

সংবাদটি শেয়ার করুন