রবিবার, ২৫শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১২ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
টানা চারদিন উত্থানের পর হঠাৎ নিম্নগামী

পতনে শেষ লেনদেন

পুঁজিবাজার
  • সব ধরনের সূচক পতন
  • সেরা ডিএসইতে জেনেক্স ইনফোসিস

দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) গতকাল সোমবার সব ধরনের সূচক পতনে লেনদেন শেষ হয়েছে। লেনদেন পরিমাণ ডিএসইতে কমলেও সিএসইতে বেড়েছে। ডিএসইর লেনদেন ১২শ কোটি টাকায় এসেছে। আর সিএসইর লেনদেন ২২শ কোটি টাকা। ক্রেতার চেয়ে বিক্রেতার চাপ বেশি।

স্টক এক্সচেঞ্জ সূত্রমতে, গতকাল সোমবার ডিএসইতে ১ হাজার ২৩৫ কোটি ৬৫ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে। আগের কার্যদিবস গত রবিবার ডিএসইতে লেনদেন হয়েছিল ১ হাজার ২৭৫ কোটি ৩১ লাখ টাকার শেয়ার। এদিন ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ২ দশমিক ৭৪ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ৬ হাজার ৩৯৩ দশমিক শূন্য ২ পয়েন্টে। এছাড়া ডিএসই-৩০ সূচক ১২ দশমিক ৮৭ পয়েন্ট এবং ডিএসইএস সূচক ৪ দশমিক ৩৫ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ২ হাজার ২৪৫ দশমিক ৯৫ পয়েন্টে এবং ১ হাজার ৪০১ দশমিক ১৬ পয়েন্টে।

গতকাল ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ৩৫৪টি কোম্পানির মধ্যে শেয়ার ও ইউনিটের দর বেড়েছে ৪৮টি এবং কমেছে ৯৮টির। শেয়ার পরিবর্তন হয়নি ২০৮টির। এদিন ডিএসইতে জেনেক্স ইনফোসিসের শেয়ার কেনাবেচায় কদর সবচেয়ে বেশি ছিল। ফলে লেনদেন শীর্ষে কোম্পানিটির শেয়ার স্থান পায়। এদিন জেনেক্স ইনফোসিস ৮৬ কোটি ৪৮ লাখ টাকার শেয়ার কেনাবেচা হয়।

লেনদেনের শীর্ষ অবস্থানে থাকা এদিন অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে ওরিয়ন ফার্মা ৬০ কোটি ৬০ লাখ টাকা, ইস্টার্ন হাউজিং ৬০ কোটি ৩৮ লাখ টাকা, আইটিসি ৪৯ কোটি ১৫ লাখ টাকা, বসুন্ধরা পেপার ৪২ কোটি ১৪ লাখ টাকা, নাভানা ফার্মা ৪০ কোটি ১৯ লাখ টাকা, লুব-রেফ ৪০ কোটি ১৯ লাখ টাকা, বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশন ২৪ কোটি ৬৪ লাখ টাকা, জেআইএম হসপিটাল ২৪ কোটি ১২ লাখ টাকা এবং আনোয়ার গ্যালভানাইজিং ২৩ কোটি ৬৮ লাখ টাকার শেয়ার কেনাবেচা হয়।

আরও পড়ুনঃ  পুঁজিবাজারে খরায় বিনিয়োগে দ্বিধা

অপরদিকে, সিএসইতে গতকাল সোমবার লেনদেন হয়েছে ২২ কোটি ৪৮ লাখ টাকা শেয়ার। আগের কার্যদিবস রবিবার ২২ কোটি ৯ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছিল। এদিন সিএসইতে লেনদেন হওয়া ২৩৫টি কোম্পানির মধ্যে শেয়ার ও ইউনিট দর বেড়েছে ৪৯টি, কমেছে ৬৫টি এবং পরিবর্তন হয়নি ১২১টির।

এদিন সিএসইর প্রধান সূচক সিএএসপিআই ৩৯ দশমিক শূন্য ৮ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১৮ হাজার ৮৭৯ দশমিক ৫১ পয়েন্টে। এছাড়া সিএসই-৫০ সূচক ৩ দশমিক ৫২ পয়েন্ট, সিএসই-৩০ সূচক ৪ দশমিক ৫২ পয়েন্ট, সিএসসিএক্স সূচক ২৩ দশমিক ৭৭ পয়েন্ট এবং সিএসআই সূচক ১ দশমিক ৪৬ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ১ হাজার ৩৪৭ দশমিক শূন্য ৮ পয়েন্টে, ১৩ হাজার ৩৪৪ দশমিক ৯২ পয়েন্টে, ১১ হাজার ৩১৪ দশমিক ৯৩ পয়েন্টে এবং ১ হাজার ২১৪ দশমিক শূন্য ৫ পয়েন্টে।

এদিন সিএসইতে বাংলাদেশ জেনারেল ইন্স্যুরেন্সের শেয়ার কেনাবেচায় কদর সবচেয়ে বেশি ছিল। ফলে লেনদেন শীর্ষে কোম্পানিটির শেয়ার স্থান পায়। এদিন বাংলাদেশ জেনারেল ইন্স্যুরেন্সে ৩ কোটি ২ টাকার শেয়ার কেনাবেচা হয়। লেনদেনের শীর্ষ অবস্থানে থাকা এদিন অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে জেনেক্স ইনফোসিস ১ কোটি ৮০ লাখ টাকা, নাভানা ফার্মা ১ কোটি ৩৪ লাখ টাকা, জেএমআই হসপিটাল ৯০ লাখ টাকা, বেক্সিমকো ৯০ লাখ টাকা, প্রাইম ইন্স্যুরেন্স ৮০ লাখ টাকা, ওরিয়ন ফার্মা ৭৭ লাখ টাকা, দেশ জেনারেল ইন্স্যুরেন্স ৫৭ লাখ টাকা, স্কয়ার ফার্মা ৫৫ লাখ টাকা এবং স্কয়ার টেক্সটাইল ৫৪ লাখ টাকার শেয়ার কেনাবেচা হয়।

আরও পড়ুনঃ  রুপপুরে পৌঁছেছে ইউরেনিয়ামের প্রথম চালান

আনন্দবাজার/শহক

Print Friendly, PDF & Email

সংবাদটি শেয়ার করুন