শুক্রবার, ২৩শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১০ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
লাভ বেশি, খরচ কম

পদ্মার চরাঞ্চলে বাড়ছে কলাচাষ

পদ্মার চরাঞ্চলে বাড়ছে কলাচাষ

পাবনার ঈশ্বরদীর পদ্মার বিস্তীর্ণ চরাঞ্চলে হচ্ছে কলা চাষ। চরের যতদূর চোখ যায় শুধু কলা বাগান। স্বল্প ব্যয়ে অধিক লাভ হওয়ায় চার বছর ধরে চরাঞ্চলের চাষিরা কলা চাষে ঝুঁকেছেন। উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, চলীত ১ হাজার ৮৪০ হেক্টর জমিতে কলার আবাদ হয়েছে। এর মধ্যে লক্ষ্মীকুন্ডা ইউনিয়নেই ১ হাজার ৮০০ হেক্টর জমিতে কলা আবাদ হয়েছে।

কামালপুর চরের কলাচাষি মামুন বলেন, ৪০ বিঘা জমিতে কলার আবাদ করেছি। ফলন ভালো হয়েছে। পাইকাররা বাগানে এসে কলা কিনে নিয়ে যায়। আরেক চাষি হাসান জানান, বিঘাপ্রতি লাভ হয়েছে কমপক্ষে ৫০ থেকে ৬০ হাজার টাকা।

লক্ষ্মীকুন্ডা ইউনিয়নের কৃষি উপ-সহকারী কর্মকর্তা আব্দুল আলিম বলেন, কলা চাষে এই ইউনিয়নের কৃষকদের মধ্যে অভূতপূর্ব সাড়া  পড়েছে। সকলে কলা চাষে ঝুঁকেছেন। কলা চাষে বিঘাপ্রতি খরচ ৪৫-৫০ হাজার টাকা। বিক্রি হয় ১ লাখ থেকে ১ লাখ ২০ হাজার টাকা। এখানে সবরি কলার বেশি আবাদ হয়। পাশাপাশি সাগর, মেহের সাগর ও অমৃত সাগর কলারও আবাদ হয়।উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মিতা সরকার জানান, পদ্মার চরাঞ্চলে এবার কলার ভালো ফলন হয়েছে। চাষিরা লাভবান হওয়ায় প্রতি বছরই এর আবাদ বাড়ছে। কৃষি বিভাগ থেকে চাষিদের সব ধরনের পরামর্শ ও সহযোগিতা দেওয়া হচ্ছে।

আনন্দবাজার/শহক

Print Friendly, PDF & Email
আরও পড়ুনঃ  সংকট নেই সার বীজ জ্বালানির

সংবাদটি শেয়ার করুন