আগস্ট ১৯, ২০২২

এশিয়ার শীর্ষ ধনী নারী সাবিত্রী জিন্দাল

এশিয়ার শীর্ষ ধনী নারীদের তালিকায় পরিবর্তন এসেছে। ইয়াং হুইয়ান আর এশিয়ার সবচেয়ে ধনী নারী নন। চীনে সংকটে পড়েছে প্রোপার্টি ডেভেলপাররা। এতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে তার কোম্পানি কান্ট্রি গার্ডেন হোল্ডিংস কোম্পানিও।

ব্লুমবার্গের বিলিয়নিয়ারস ইনডেক্স অনুসারে, ইয়াংকে টপকে এশিয়ার শীর্ষ নারী ধনীর তালিকায় নাম লিখিয়েছেন ভারতের সাবিত্রী জিন্দাল। জিন্দাল গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা তিনি। তার বর্তমান সম্পত্তির পরিমাণ হচ্ছে, ১১ দশমিক ৩ বিলিয়ন ডলার।

চীনা টাইকুন ফ্যান হংওয়েই থেকেও নিচে নেমে গেছে ইয়াংয়ের সম্পদ। যার অর্থ রাসায়নিক-ফাইবার কোম্পানি হেংলি পেট্রোকেমিক্যাল কোম্পানি থেকে এসেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইয়াংয়ের সম্পদে নাটকীয় পতন হয়েছে। ২০০৫ সালে তিনি তার বাবার রিয়েল স্টেটে কোম্পানির দায়িত্ব নেন। এরপর তিনি বিশ্বের কনিষ্ঠ বিলিয়নিয়ারের খেতাব পান। প্রথম পাঁচ বছর তিনি এশিয়ার সবচেয়ে ধনী নারী ছিলেন।

অন্যদিকে, ৭২ বছর বয়সী জিন্দাল ভারতের সবচেয়ে ধনী নারী এবং ১০তম ধনী নাগরিক। ২০০৫ সালে ওপি জিন্দাল একটি ব্যবসায়িক সফরে যাওয়ার সময় তার স্বামী হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় মারা যান।

গত কয়েক বছরে জিন্দালের সম্পদ নাটকীয়ভাবে বেড়েছে এবং কমেছে। করোনা মহামারির সময় তার সম্পদ কমে তিন দশমিক দুই বিলিয়ন ডলারে নেমে আসে। তবে ২০২২ সালের এপ্রিলে ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসনের পরে সম্পদ বেড়ে ১৫ দশমিক ৬ বিলিয়ন ডলারে উন্নীত হয়।

আনন্দবাজার/টি এস পি

Print Friendly, PDF & Email
আরও পড়ুনঃ  লাদাখের বিস্তীর্ণ এলাকা দখলে নিয়েছে চীনা সেনারা

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published.

ই-পেপার
প্রথম পাতা
খবর
অর্থ-বাণিজ্য
শেয়ার বাজার
মতামত
বিশ্ব বাণিজ্য
ক্যারিয়ার
খেলার মাঠ
প্রযুক্তি বাজার
শিল্পাঞ্চল
পণ্যবাজার
সারাদেশ
শেষ পাতা