শনিবার, ১৩ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ২৯শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

অশনির ‘শনি’ কাটাবে উপকূল

অশনির ‘শনি’ কাটাবে উপকূল
  • হাতিয়ায় নৌ-চলাচল বন্ধ
  • ফিরোজপুরে প্রস্তুত ২৪৭ সাইক্লোন শেল্টার

ঘূর্ণিঝড় অশনির প্রভাবে তিন বিভাগে ভারী বর্ষণের পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। তিন বিভাগে কোথাও কোথাও ২৩ থেকে ৪৩ মিলিমিটার থেকে ৮৯ মিলিমিটার বর্ষণ হতে পারে। গতকাল সোমবার বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ হাফিজুর রহমান স্বাক্ষরিত পূর্বাভাসে এ তথ্য জানানো হয়। আবহাওয়া অফিস জানায়, পশ্চিম-মধ্য বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থানরত প্রবল ঘূর্ণিঝড় ‘অশনি’ এর অগ্রবর্তী অংশের প্রভাবে আজ সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী (২৩-৪৩ মিলিমিটার) থেকে অতি ভারী (৮৯ মিলিমিটার বা তারও বেশি) বর্ষণ হতে পারে।

এদিকে উপকূলীয় জেলা পিরোজপুরে বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত ঘূর্ণিঝড় ‘আসানি’ মোকাবেলায় ২৪৭টি সাইক্লোন শেল্টার প্রস্তুত রাখা হয়েছে। গতকাল সোমবার দুপুরে ঘূর্ণিঝড় ‘আসানি’ মোকাবেলায় জেলা প্রশাসকের সভা কক্ষে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ জাহেদুর রহমানের সভাপতিত্বে এক প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সভায় জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ জাহেদুর রহমান জানান, বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত ঘূর্ণিঝড় ‘আসানি’ মোকাবেলায় জেলার ৭টি উপজেলায় ২৪৭ সাইক্লোন শেল্টার প্রস্তুত আছে। পরিস্থিতি মোকাবেলায় জেলা প্রশাসনের কাছে  ৪২৫ প্যাকেট শুকনা খাবার তৈরী কার আছে। এছাড়া প্রতিটি উপজেলায় একটি করে কন্টোল রুম ও একটি করে মেডিকেল টিম গঠন করা হয়েছে মানুষের সেবা প্রদানের জন্য। পরিস্থিতির আরো অবনতি হলে জনগনকে সতর্ক করার জন্য মাইকিং করা হবে।

সভায় পিরোজপুর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোল্লা আজাদ হোসেন জানান, ঘূর্ণিঝড় ‘আসানি’ কালীন সময়ে ও তার পূর্ববর্তী সময়ে সাধারণ মানুষের ও তাদের সম্পদকে রক্ষা করার জন্য পুলিশ কাজ করে যাবে। এছাড়া ঘূর্ণিঝড়ের  সময়ে বিশেষ সেবা দিতে প্রস্তুত আছে জেলা পুলিশ।

আরও পড়ুনঃ  ইতিহাসের বড় সাইবার হামলা

পিরোজপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মাহবুবে মাওলা মো: মেহেদী হাসান জানান, জেলার মঠবাড়িয়ায় সাপলেজা এলাকাসহ সদর উপজেলা ও ইন্দুরকানীর কিছু এলাকায় নদীর পড়ের বাধ ঝুঁকিপূর্ণ ও ক্ষতিগ্রস্ত আছে। সেই সব এলাকায় বাঁধ রক্ষায় তারা কাজ করছে।

পিরোজপুরের সিভিল সার্জন ডা. হাসনাত ইউসুফ জাকি জানান, পিরোজপুর জেলায় আইভি এবং ওরস্যালাইন যথেষ্ট পরিমাণ মজুদ রয়েছে। ঘূর্ণিঝড় ‘আসানি’ মোকাবেলায় তারা প্রস্তুত আছেন।

এদিকে বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত ঘূর্ণিঝড় ‘আসানি’ এভাবে পিরোজপুরে সকাল থেকে গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি হচ্ছে। রাতে আবহাওয়ার গুমোটভাব থাকলেও সকাল থেকে থেমে থেমে বৃষ্টি হচ্ছে। নদীতে বাড়তে শুরু করেছে পানি।

এদিকে আমাদের নোয়াখালী প্রতিনিধি জানিয়েছেন, ঘূর্ণিঝড় ‘অশনি’ প্রভাব ও দূর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে নোয়াখালীর দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ার নলচিরা-চেয়ারম্যানঘাট’সহ সকল রুটে নৌযান চলাচল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত সকল নৌ-যানকে উপকূলের কাছাকাছি থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

গতকাল সোমবার সকাল থেকে উপজেলা প্রশাসনের নির্দেশে নৌ-যান চলাচল বন্ধ রেখেছে কর্তৃপক্ষ। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সেলিম হোসেন।

জানা গেছে, ঘূর্ণিঝড় ‘অশনি’ এর প্রভাবে হাতিয়ার মেঘনা নদী উত্তাল রয়েছে, চলছে ২নম্বর সংকেত। সকাল থেকে উপজেলায় বৃষ্টি হচ্চে, এছাড়াও জেলার প্রতিটি স্থানে হালকা ও মাঝারি ধরনের বৃষ্টি হচ্ছে। একদিকে বৃষ্টি অন্যদিকে ধমকা হাওয়ার কারনে নদী পারাপারে ঝুঁকি রয়েছে। তাই সকাল থেকে সাময়িক ভাবে নৌ-চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে।

নলচিরা ঘাটের ইজারাধার প্রতিনিধি ফাহিম উদ্দিন জানান, প্রশাসনের নির্দেশে সকাল থেকে নৌ-চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ  প্রথমবারের মতো দেশে যাত্রা শুরু করলো বিয়ার্ডো

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সেলিম হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, বর্তমানে ২নম্বর সংকেত চলছে। ঘূর্ণিঝড় মোকাবেলায় ইতিমধ্যে কিছু প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। উপকূলসব দ্বীপ উপজেলার প্রতিটি স্থানে জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে সর্তকতামূলক মাইকিং করা হচ্ছে। প্রস্তুত করা হচ্ছে সাইক্লোন সেন্টারসহ আশ্রয়ণ কেন্দ্রগুলো।

Print Friendly, PDF & Email

সংবাদটি শেয়ার করুন