শনিবার, ১৩ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ২৯শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শিল্পোন্নত দেশের লক্ষ্য অর্জনে বিসিককে ভূমিকা পালন করতে হবে : শিল্প সচিব

২০৪১ সালের মধ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত শিল্পোন্নত বাংলাদেশ বিনির্মাণ করতে হলে বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করপোরেশনের (বিসিক) কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে বলে জানিয়েছেন শিল্প সচিব কেএম আলী আজম।

গতকাল ডিজিটাল প্লাটফর্মে বিসিকের ৬৪টি জেলা পর্যায়ে কর্মরত জনবলের জন্য আয়োজিত ‘ই-ফাইলিং’ বিষয়ক প্রশিক্ষণ কোর্সের উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ আহ্বান জানান শিল্প সচিব। বিসিক আইসিটি সেল দুই দিনব্যাপী এ প্রশিক্ষণ কোর্সের আয়োজন করে।

শিল্প সচিব বলেন, দেশে টেকসই ও পরিবেশবান্ধব শিল্পায়নে বিসিক কর্মকর্তা-কর্মচারীদের প্রযুক্তিতে দক্ষতা অর্জনের পাশাপাশি সর্বাধুনিক জ্ঞানে সমৃদ্ধ হতে হবে। আগস্টের শোককে শক্তিতে পরিণত করে শিল্পসমৃদ্ধ বাংলাদেশ বিনির্মাণে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। জাতির পিতার চেতনা ধারণ করে আগামী প্রজন্মের জন্য জ্ঞানভিত্তিক ও তথ্যপ্রযুক্তিনির্ভর শিল্পায়নের ধারা জোরদার করতে হবে।

তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু বাঙালি জাতিকে শিল্পসমৃদ্ধ জাতিতে পরিণত করার লক্ষ্যেই ১৯৫৭ সালে তত্কালীন ইপসিক তথা বর্তমান বিসিক প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। বঙ্গবন্ধুর সেই শিল্পদর্শনের ভিত্তিতে প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত ২০৪১ সালে শিল্পোন্নত বাংলাদেশ বিনির্মাণের গুরুদায়িত্ব বিসিক পরিবারের ওপর বর্তায়।

সভাপতির বক্তব্য রাখেন বিসিক চেয়ারম্যান মো. মোশতাক হাসান। এছাড়া প্রশিক্ষণ কোর্সের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে পরিচালক (প্রযুক্তি ও দক্ষতা) ড. মোহা. আব্দুস ছালাম, বিসিক সচিব মো. মফিদুল ইসলামসহ বিসিকের বিভিন্ন বিভাগ ও শাখাপ্রধানরা উপস্থিত ছিলেন।

আনন্দবাজার/ডব্লিউ এস

Print Friendly, PDF & Email
আরও পড়ুনঃ  আম্পানে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় দ্রুত বিদ্যুত সংযোগের নির্দেশ

সংবাদটি শেয়ার করুন