শনিবার, ১৩ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ২৯শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

খুলনায় প্রথম প্লাজমা থেরাপি নেওয়া করোনা রোগীর মৃত্যু

মারা গেছে খুলনায় করোনা চিকিৎসায় প্লাজমা থেরাপি নেওয়া প্রথম রোগী। করোনায় আক্রান্ত তানভির আলমকে (৩১) চিকিৎসার পাশাপাশি গেল ২৮ মে প্লাজমা থেরাপি দেওয়া হয়। জানা গেছে, তিনি খুলনার করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন।

আজ রবিবার (৩১ মে) সকাল ৮টার দিকে তিনি মারা যান। এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন খুলনা মেডিক্যাল কলেজের উপাধ্যক্ষ ডা. মেহেদী নেওয়াজ ।

তিনি জানান, ‘তানভির আলমের অবস্থা দিন দিন খারাপ হচ্ছিল। তাকে করোনার সব ধরনের চিকিৎসার পাশাপাশি প্লাজমা থেরাপিও দেওয়া হয়। প্লাজমা থেরাপিতে কোনও ধরনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই। কিন্তু কোনও চিকিৎসাই কাজে দিলো না। তাকে একজন ইন্টার্ন চিকিৎসক (যিনি সদ্য করোনা মুক্ত হয়েছেন) প্লাজমা থেরাপির জন্য রক্ত দিয়েছিলেন। মঞ্জুর আলম নামে সলিমুল্লাহ মেডিক্যাল কলেজের ওই চিকিৎসকের রক্ত থেকে প্লাজমা (রক্তরস) নিয়ে তানভিরকে দেওয়া হয়েছিল।

তিনি আরও জানান, তানভিরকে দেওয়া প্লাজমার ফলাফল পাওয়ার পর্যবেক্ষণ সময় ছিল ৭২ ঘণ্টা। আজ রবিবার বিকাল পর্যন্ত এই পর্যবেক্ষণের সময় ছিল। কিন্তু তার আগেই সকালে তার মৃত্যু হল।

তানভির খুলনার রূপসা উপজেলার নৈহাটি ইউনিয়নের বাগমারা গ্রামের আলাউদ্দীনের ছেলে। গেল ২৪ মে তিনি করোনা শনাক্ত হলে তাকে ডেডিকেটেড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তিনি ঢাকার একটি মোবাইল সফটওয়্যার কোম্পানিতে চাকরি করতেন।

আনন্দবাজার/এইচ এস কে

 

 

Print Friendly, PDF & Email
আরও পড়ুনঃ  আরাভ নামের কাউকে চেনেন না : বেনজীর

সংবাদটি শেয়ার করুন