শনিবার, ১৩ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ২৯শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভুল চিকিৎসা প্রমাণিত হওয়ায় চিকিৎসকের নিবন্ধন স্থগিত!

ভুল চিকিৎসা প্রমাণিত হওয়ায় চিকিৎসকের নিবন্ধন স্থগিত!

চিকিৎসকের অবহেলা ও ভুল অস্ত্রোপচারের অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় অধ্যাপক ডা. আলী জাহীর আল আমীনের নিবন্ধন এক বছরের জন্য স্থগিত করেছে বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিল (বিএমডিসি)।

গত বুধবার বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিলের রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) ডা. মো. লিয়াকত হোসেন স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, তেজগাঁওয়ের ইমপালস হেলথ সার্ভিসেস অ্যান্ড রিচার্স সেন্টারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. আলী জাহীর ২০২০ সালের ১১ মার্চ ইমপালস হাসপাতালের তেজগাঁও সেন্টারে কানের অস্ত্রোপচারের জন্য ভর্তি হওয়া মোমেনা হক মুন নামে এক নারীর চিকিৎসা করেন।

অভিযোগ আছে ৩৮ বছর বয়সী ওই নারীর সমস্যা ছিল বাম কানে। কিন্তু ভুলে ডান কানের অস্ত্রোপচার করেন অধ্যাপক আলী জাহীর। এতে করে রোগীর মুখের আকৃতি বাঁকা হয়ে যায়। কিন্তু রোগীর স্বজনকে মিথ্যা তথ্য দেন তিনি। পরে এ বিষয়ে রোগীর স্বামী জিয়াউর রহমান ভূঁইয়া বিরুদ্ধে অভিযোগ দাখিল করেন।

পরে বিএমডিসি বরাবর ভুল চিকিৎসার অভিযোগ করেন রোগীর স্বামী জিয়াউর রহমান ভূঁইয়া। অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে আড়াই বছরের বেশি সময় তদন্ত করে ঘটনার সত্যতা পায় বিএমডিসি। একই সঙ্গে আলী জাহীরের কাছে ব্যাখ্যাও চাওয়া হয়। গত ৩১ অক্টোবর ভুল চিকিৎসার অভিযোগের বিষয়ে বিএমডিসির কাছে লিখিত জবাব দেন ওই চিকিৎসক। কিন্তু তাতে সন্তুষ্ট হতে পারেনি বিএমডিসি।

এরই প্রেক্ষিতে বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিল আইন, ২০১০ (৬১ নং আইন) এর ২৩(১) ধারায় প্রদত্ত ক্ষমতাবলে বিএমডিসি থেকে দেওয়া রেজিস্ট্রেশন (A-12688) এক বছরের জন্য স্থগিত করা হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ  সুন্দরবনে বেড়েছে বাঘ

ডা. আলী জাহীরকে বিএমডিসি থেকে পাঠানো এক চিঠিতে বলা হয়েছে, আগামী ২০ নভেম্বর থেকে তার স্থগিতাদেশ কার্যকর হবে। উল্লেখিত সময়ে বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিল আইন, ২০১০ (৬১ নং আইন) এর ধারা ২২(১) অনুযায়ী তার রেজিস্ট্রেশন স্থগিতকালীন চিকিৎসক হিসেবে কোথাও কোনো প্রকার চিকিৎসা সেবা দিতে পারবেন না। এমনকি ওই সময়ে তিনি নিজেকে চিকিৎসক হিসেবে পরিচয় দিতে পারবেন না।

আনন্দবাজার/কআ

Print Friendly, PDF & Email

সংবাদটি শেয়ার করুন