বুধবার, ২৪শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৯ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফিরে আসবে কার্পাস তুলার ঐতিহ্য                                                    

ফিরে আসবে কার্পাস তুলার ঐতিহ্য        

কার্পাস শব্দটি থেকেই মূল উৎপত্তি কাপাসিয়ার। একটা সময় ইতিহাস বিখ্যাত প্রাচীন আমলের মসলিন কাপড়ের একমাত্র উপাদান ছিলো কার্পাস তুলা। ইতিহাস বিখ্যাত কার্পাস তুলার তীর্থ ভূমি ছিলো কাপাসিয়া। মসলিন কাপড়ের উৎপাদন ও বিক্রয়ের অন্যতম বানিজ্যিক কেন্দ্র ছিলো এটি। কালের পরিক্রমায় এই ঐতিহ্যটিকে হারিয়ে ফেলে কাপাসিয়া। ঐতিহাসিক কার্পাস তুলার হারিয়ে যাওয়া ঐতিহ্যকে পুনরায় এ উপজেলায় ফিরিয়ে আনার উদ্যোগ গ্রহন করা হয়েছে।

এরই ধারাবাহিকতায় গাজীপুরের কাপাসিয়ায় ঐতিহ্যবাহী কার্পাস তুলাচাষ বৃদ্ধির সম্ভাবনা ও করণীয় শীর্ষক এক প্রশিক্ষণ কর্মশালা মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত হয়েছে। উপজেলা পরিষদ হলরুমে তুলা উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃক আয়োজিত কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় ¯’ায়ী কমিটির সভাপতি সিমিন হোসেন রিমি এমপি।

তিনি বলেন, কাপাসিয়া, শ্রীপুর ও মনোহরদী এলাকায় এক সময় ব্যাপক হারে কার্পাস তুলা চাষ হতো। আমরা কার্পাস তুলাচাষের ঐতিহ্যকে আবার ফিরিয়ে আনতে চাই। এই এলাকার তরুণদেরকে তিনি কার্পাস তুলাচাষের মাধ্যমে সবুজ অর্থনীতি গড়ে তুলে স্বাবলম্বী হওয়ার আহবান জানান।

জানা যায়, সম্প্রতি কাপাসিয়া অঞ্চলে নতুনভাবে কার্পাস তুলাচাষের ব্যাপক সাফল্য লক্ষ করা যাচ্ছে। এ সাফল্যকে টেকসই করার লক্ষ্যে কাপাসিয়ায় এক কর্মশালার আয়োজন করা হয়। এতে উপজেলার ৪০ জন কার্পাস তুলাচাষী অংশ গ্রহণ করেন। তাদেরকে কার্পাস তুলাচাষের আধুনিক পদ্ধতি, কলাকৌশল ও বাজারজাতকরণ বিষয়ে ধারণা দেন বিশেষজ্ঞরা। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এ.কে.এম গোলাম মোর্শেদ খাঁনের সভাপতিত্বে কর্মশালায় অন্যান্যের মাঝে বক্তব্য রাখেন তুলা উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী পরিচালক মো: আখতারুজ্জামান, কাপাসিয়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট মো: আমানত হোসেন খাঁন, উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি মুহম্মদ শহীদুল্লাহ প্রমুখ।

আরও পড়ুনঃ  বিমানবন্দর হাসপাতাল ও গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় সতর্কতা জোরদার

এ বিষয়ে তুলা উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী পরিচালক মো: আখতারুজ্জামান বলেন, কার্পাস তুলাচাষ করলে এই এলাকার মসলিনের সাথে জড়িয়ে থাকা ঐতিহ্য ফিরে আসবে। এমনকি এখানে কার্পাস তুলাচাষ কেন্দ্রিক পর্যটন শিল্প গড়ে তুলা সম্ভব হবে। কর্মশালা শেষে সন্ধ্যায় চাষীদের মাঝে প্রধান অতিথি বিনামূল্যে কার্পাস তুলার চারা বিতরণ করেন।

Print Friendly, PDF & Email

সংবাদটি শেয়ার করুন