শুক্রবার, ১২ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ২৮শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

প্রাইম কোট ছাড়াই কার্পেটিং

প্রাইম কোট ছাড়াই কার্পেটিং

প্রকৌশলার প্রাইম কোট ছাড়াই কার্পেটিং টেকসই ভালো হয়।

  • শ্রীনগরে রাস্তার কাজে অনিয়ম

শ্রীনগরে এলজিইডির অর্থায়নে প্রাইম কোট ছাড়াই প্রায় কোটি টাকার কার্পেটিং কাজ করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। উপজেলার সদর ইউনিয়নের শ্রীনগর বাড়ৈখালী জেসি সড়ক হিসেবে পরিচিত ২৩৬০ মিটার রাস্তার কার্পেটিংয়ের কাজও প্রায় শেষের দিকে। গুরুত্বপূর্ণ সড়কটির কার্পেটিং কাজে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে।

গত শুক্রবার সরেজমিনে সদর ইউনিয়নের সবুজহাঁটি মোড়ে গিয়ে দেখা যায়, প্রাইম কোট ছাড়াই তড়িঘড়ি করে রাস্তার পিচ ঢালাইয়ের কাজ করা হচ্ছে। এ নিয়ে স্থানীয় সচেতন মহলের সঙ্গে ঠিকাদারের লোকজন ও উপজেলা প্রকৌশলী অফিস সংশ্লিষ্টদের বাকবিতণ্ডা হয়। পরে ঠিকাদারের লোকজন সেখান থেকে চলে যান। তবে তদারকির দায়িত্বে থাকা উপ সহকারী প্রকৌশলীকে উপস্থিত দেখা যায়নি। তবে ওয়ার্ক এসিস্টেন্ট মো. ইদ্রিস আলী বলেন, প্রাইম কোট ছাড়াই রাস্তায় পিচ ঢালাই কাজ ভালো হয়।

সূত্রমতে, শ্রীনগর বাড়ৈখালী জেসি সড়কের (রক্ষণাবেক্ষণ) কাজটির টেন্ডার পায় মেসার্স কামাল ট্রের্ডাস নামের ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। ১২ ফুট প্রস্থে ২৩৬০ মিটার দৈর্ঘ রাস্তার কাজে চুক্তিমূল্য নির্ধারণ হয় ৮৯ লাখ ৭৮ হাজার ৫৯৩ টাকা। কার্পেটিংয়ের কাজে ব্যবহার করা হচ্ছে ইরানি বিটুমিন ও নিম্নমানের উপকরণ সামগ্রী দিয়ে। এছাড়া মূল রাস্তার দুই পাশে ৩ ফুট করে শোল্ডার থাকার কথা থাকলেও পুরো সড়ক জুড়ে কোথাও শোল্ডারের পরিমাপ ঠিক নেই। যেন তেনভাবে কাজ করায় বৃষ্টি মৌসুমে সড়কের কের্পেটিং উঠে যাওয়ার পাশাপাশি সড়কের পাড় ভেঙে পড়ার অশঙ্কাও করছে অনেকে।

আরও পড়ুনঃ  করেনায় সারা দেশে নিম্ন আদালতে কার্যক্রম স্থগিত

এলাকাবাসী জানায়, কার্পেটিংয়ের আগে নিয়মানুযায়ী রাস্তার উপর প্রাইম কোট করার বিধান থাকলেও তা মান হয়নি। এজিনের দুপাশে ২ ইঞ্চি পরিমাণ কেরোসিন ও বিটুমিনের প্রলেপ দেয়া হলেও পুরো রাস্তা ফাঁকা রেখেই কার্পেটিং করা হয়েছে। সচেতন এলাকাবাসী জানান, তদারকি কর্মকর্তা অধিকাংশ সময় রাস্তার কাজ থেকে দূরবর্তী স্থানে অবস্থান নেয়ার ফলে ঠিকাদার যেনতেন ভাবে কাজ করার সুযোগ পেয়েছেন।

তবে দায়িত্বপ্রাপ্ত এলজিইডির উপজেলা উপ-সহকারী প্রকৌশলী মো. শরিফুল ইসলাম বলেন, প্রাইম কোট ছাড়াই কার্পেটিং টেকসই ভালো হয়।

Print Friendly, PDF & Email

সংবাদটি শেয়ার করুন