শুক্রবার, ১২ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ২৮শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

হলুদের যতো গুণ

বর্তমানে বেশিরভাগ মানুষই ওষুধনির্ভর হয়ে পড়ছেন। ব্যথা হলেই অনেক সময় চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়াই পেইনকিলার গ্রহণ করে অনেকে। তবে পেইনকিলার ছাড়াও যেকোনো ব্যথা নিরাময় সম্ভব হলুদের মাধ্যমে। মার্কিন বিশ্ববিদ্যালয়ের এক গবেষণা জানায়, পেইনকিলারের চেয়ে ভালো কাজ করে হলুদ।

গবেষণা বলা হয়, যাদের মাইগ্রেনের সমস্যা রয়েছে, কিংবা দাঁতের ব্যথায় ভুগছেন৷ তাদের জন্য ব্যথা নিরাময়ে দারুণ কার্যকরী হলুদ৷ এমনি হৃদরোগের সমস্যাও দূরে রাখে হলুদ৷ ক্যান্সার থেকে বাঁচতে রোজ হলুদ খাওয়ার কথা বলেছেন চিকিৎসকরা৷ এছাড়া স্মৃতি শক্তি সতেজ রাখতেও সাহায্য করে হলুদ৷

ছোটো খাটো রোগ, স্মৃতিশক্তি, কাঁটাছেঁড়া সবকিছুতেই দারুণ কার্যকরী হলুদ। কাঁচা ও গুঁড়া হলুদ, দুটিই খুব কার্যকরী৷

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, হলুদ স্বাস্থ্যের পক্ষে দারুণ উপকারি৷ শরীরে ইমিউন শক্তি বাড়ানোর জন্য খুব ভালো, অ্যান্টিবায়েটিক হিসেবে কাজ করে হলুদ।
এছাড়া হৃদপিন্ডের সমস্যায়ও দারুণ কাজ করে হলুদ৷ রোজ সকালে ঘুম থেকে উঠে ১২৫ মিলিগ্রাম হলুদের রস খেলে হার্ট ভালো থাকে৷

শরীরকে সুস্থ রাখতে রোজ সকালে খালি পেটে কাঁচা হলুদ বা গুঁড়ো হলুদ এক চামচ খেয়ে নিন৷ এক গ্লাস পানিতে হলুদের গুঁড়া মিশিয়ে পান করতে পারেন।

আনন্দবাজার/টি এস পি

Print Friendly, PDF & Email
আরও পড়ুনঃ  প্রয়োজনের চেয়ে বেশি পানি পানের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া

সংবাদটি শেয়ার করুন