মঙ্গলবার, ১৬ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১লা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চালু হলো আরও ১৮ জোড়া লোকাল ট্রেন

সম্প্রতি তৃতীয় ধাপে আরও ১৮ জোড়া অর্থাৎ ৩৬টি কমিউটার, মেইল, এক্সপ্রেস এবং লোকাল যাত্রীবাহী ট্রেন চালু করেছে বাংলাদেশ রেলওয়ে। করোনার প্রাদুর্ভাবের দীর্ঘদিন এসব ট্রেন চলাচল একেবারেই বন্ধ ছিল।

জানা গেছে, বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) কমলাপুর রেলস্টেশনের স্টেশন ম্যানেজার মোহাম্মদ মাসুদ সারোয়ার কমিউটার, মেইল, এক্সপ্রেস এবং লোকাল ট্রেন চলাচল শুরু হওয়ার ব্যাপারটি নিশ্চিত করেছেন।

তৃতীয় ধাপে আজ থেকে যেসব ট্রেন পরিচালনা করছে বাংলাদেশ রেলওয়ে সেগুলো হলো: চট্টগ্রাম-নাজিরহাট-চট্টগ্রাম রুটে নাজিরহাট কমিউটার, চট্টগ্রাম-দোহাজারী-চট্টগ্রাম রুটে লোকাল ট্রেন, মোহনগঞ্জ-ময়মনসিংহ-মোহনগঞ্জ রুটে লোকাল ট্রেন, ঝারিয়া ঝাঞ্জাইল- ময়মনসিংহ-ঝারিয়া ঝাঞ্জাইল রুটে লোকাল ট্রেন, সান্তাহার-বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম স্টেশন-সান্তাহার রুটে উত্তরবঙ্গ মেইল, পার্বতীপুর-বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম স্টেশন-পার্বতীপুর রুটে কাঞ্চন কমিউটার, লালমনিরহাট-বিরল -লালমনিরহাট রুটে দিনাজপুর কমিউটার, লালমনিরহাট-বুড়িমারী-লালমনিরহাট রুটে বুড়িমারী কমিউটার, কুড়িগ্রাম-লালমনিরহাট -কুড়িগ্রাম রুটে কুড়িগ্রাম মেইল, রাজবাড়ী-ভাঙ্গা -রাজবাড়ী রুটে রাজবাড়ী এক্সপ্রেস, রাজবাড়ী- -ভাটিয়াপাড়া-রাজবাড়ী রুটে ভাটিয়াপাড়া এক্সপ্রেস।

এসব ট্রেনের শতাভাগ টিকিট আজ থেকেই দেওয়া হচ্ছে এবং সেই সাথে ট্রেনেও যাত্রী পাশাপাশি সিটে বসে যাত্রা করতে পারছেন। কমিউটার-মেইল-এক্সেপ্রেস-লোকাল ট্রেনের সকল টিকিট স্টেশনের কাউন্টারে দেওয়া হচ্ছে।

করোনা প্রভাবের কারণে গত ২৫ মার্চ সন্ধ্যা থেকে অভ্যন্তরীণ রুটে যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল বন্ধ ছিলো। পরে সরকারের নির্দেশনার পর গত ৩১ মে থেকে আন্তনগর ট্রেন চালু করা হয়।

উল্লেখ, এখন মোট ১০৯ জোড়া অর্থাৎ ২১৮টি যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল করছে নানা রুটে। এদিকে সবাই মিলে সারা দেশে যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল করে ৩৬২টি।

আরও পড়ুনঃ  জামায়াতের বক্তব্য আসলে বিএনপির বক্তব্য -তথ্যমন্ত্রী

আনন্দবাজার/এইচ এস কে

Print Friendly, PDF & Email

সংবাদটি শেয়ার করুন