হৃদযন্ত্র সুস্থ রাখতে প্রয়োজন পর্যাপ্ত ঘুম

হৃদযন্ত্র ভালো রাখতে নিয়মিত ব্যায়াম, স্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাস, সঠিক ওজন ও ধূমপানকে না বলার পাশাপাশি প্রয়োজন দৈনিক পর্যাপ্ত ঘুমেরও। সুস্থ হৃদযন্ত্রের জন্য স্বাভাবিক হৃৎস্পন্দন (প্রতি মিনিটে ৬০-১০০ বার), স্বাভাবিক রক্তচাপ ও স্বাভাবিক দেহঘড়ি খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

গবেষণায় দেখা গেছে, যারা নিয়মিত পর্যাপ্ত ঘুমান তাদের চেয়ে যারা প্রতি রাতে ছয় ঘণ্টার কম ঘুমান তাদের হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি বেশি প্রায় ২০ শতাংশ। যারা কম ঘুমান তাদের মধ্যে উচ্চ রক্তচাপ, ডায়াবেটিস ও স্থূলতার হারও বেশি। তাই হৃদরোগের ঝুঁকি কমাতে স্বাভাবিক ও পর্যাপ্ত ঘুম অবশ্যই দরকার।

আমেরিকান হার্ট অ্যাসোসিয়েশন জানায়, হৃদযন্ত্রের সুস্থতায় একজন মানুষের দৈনিক ছয় থেকে আট ঘণ্টা ঘুমানো উচিত।

দৈনিক পর্যাপ্ত ঘুম না হলে আমাদের ক্ষুধা দমনকারী হরমোনগুলোর নিঃসরণ কমে যায়। যা ওজন বাড়িয়ে তুলে। পর্যাপ্ত ঘুম না হলে হৃদযন্ত্রের ধমনিতে ক্যালসিয়াম জমতে ভূমিকা রাখে। দীর্ঘদিন ধমনিতে এভাবে ক্যালসিয়াম জমতে থাকলে হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি বেড়ে যায়।

বিভিন্ন গবেষণায় জানা গেছে, প্রতি রাতে মাত্র এক ঘণ্টার কম ঘুমে ধমনিতে ক্যালসিয়াম জমার হার ৩৩ শতাংশ বেড়ে যায়।

স্বাস্থ্যকর ঘুমের অভ্যাস গড়ে তুলতে যে বিষয়গুলো খেয়াল রাখতে হবে :

– প্রতি রাতে একই সময় বিছানায় যাওয়া এবং সাপ্তাহিক ছুটির দিনসহ প্রতি সকালে একই সময় ঘুম থেকে ওঠতে হবে।

– শোয়ার ঘর শীতল, অন্ধকার ও শান্ত রাখতে হবে।

– ঘুমানোর আগে চা-কফি ও কোমল পানীয় পান এড়িয়ে চলতে হবে।

– দিনের বেলা ব্যায়াম করতে হবে।

– ঘুমাতে যাওয়ার কমপক্ষে আধা ঘণ্টা আগে কম্পিউটার, মুঠোফোন ও টিভি বন্ধ করতে হবে।

আনন্দবাজার/টি এস পি

Print Friendly, PDF & Email

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *