আগস্ট ১৯, ২০২২

বিদ্যালয় আছে শিক্ষার্থী নেই

সেই প্রধানশিক্ষক সাময়িক বরখাস্ত

সেই প্রধানশিক্ষক সাময়িক বরখাস্ত
  • বিভাগীয় মামলার নির্দেশ

অভিভাবককে জুতাপেটা করার ঘটনায় লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার সেই প্রধান শিক্ষিকা শামসুন্নাহার ছবিকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে কর্তৃপক্ষ। গত বৃহস্পতিবার বিকেলে লালমনিরহাট জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার গোলাম নবী ওই প্রধান শিক্ষিকাকে সাময়িক বরখাস্তের বিষয় নিশ্চিত করে বলেন, তার সকল দায়িত্ব থেকে অপসারিত করা হয়েছে। সাময়িক বরখাস্থাদেশ প্রাপ্ত শামসুন্নাহার ছবি উপজেলার পশ্চিম সারডুবী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক।

জানা যায়, ১৮ জুলাই বিদ্যালয়ে দেরিতে আসার বিষয়ে জানতে চাইলে প্রধান শিক্ষক শামসুন্নাহার ছবি এক শিক্ষার্থীর অভিভাবককে জুতাপেটা করেন। এর প্রতিবাদে ১৯ জুলাই দুপুরে মহাসড়কে মানববন্ধন করেন অভিভাবকরা। এ নিয়ে স্থানীয় ১১জন অভিভাবকের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ দেন প্রধান শিক্ষক। এর জেরে ২৪ জুলাই থেকে শিক্ষার্থীদের বিদ্যালয়ে পাঠাচ্ছেন না অভিভাবকরা। এ ঘটনায় প্রধান শিক্ষিকা শামসুন্নাহার ছবি’র অপসরন দাবি করে বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থী পাঠানো বন্ধ করেন অভিভাবকরা।

সেই থেকে শিক্ষকরা বিদ্যালয়ে আসলেও গত ৫ দিন থেকে কোনো শিক্ষার্থী বিদ্যালয় আসেনি।  এতে বিদ্যালয়ে পাঠদান বন্ধ থাকে। এর গত মঙ্গলবার অভিভাবক সমাবেশ ডাকেন বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। যেখানে উপজেলা সহকারী প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার বেলাল হোসেন আসলেও সমাবেশে আসেননি কোনো অভিভাবক ও শিক্ষার্থী।

অবশেষে ওই দিন সহকারী শিক্ষকদের নিকট থেকে প্রধান শিক্ষকের আচরণ ও অভিভাবকদের সঙ্গে ঘটে যাওয়া ঘটনার লিখিত বক্তব্য গ্রহন করেন সহকারী প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার বেলাল হোসেন। যা তদন্ত প্রতিবেদন হিসেবে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস হয়ে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারকে পাঠানো হয়।

আরও পড়ুনঃ  বুলবুলের চেয়ে আম্পানের তাণ্ডবে সুন্দরবনে ৩ গুণ বেশি ক্ষতি

তদন্ত প্রতিবেদনের পর্যালোচনা করে অভিযুক্ত প্রধান প্রধান শিক্ষিকা শামসুন্নাহার ছবিকে সাময়িক বরখাস্থ করে। বৃহস্পতিবার পত্র পাঠায় জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার গোলাম নবী। একই সঙ্গে ওই শিক্ষিকার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলার সুপারিশ করা হয়েছে।

লালমনিরহাট জেলার প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার গোলাম নবী বলেন, বিদ্যালয়ে ঘটে যাওয়া ঘটনার তদন্ত প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে আপাতত ওই শিক্ষিকাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। একই সঙ্গে বিভাগীয় মামলা দায়ের করার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published.

ই-পেপার
প্রথম পাতা
খবর
অর্থ-বাণিজ্য
শেয়ার বাজার
মতামত
বিশ্ব বাণিজ্য
ক্যারিয়ার
খেলার মাঠ
প্রযুক্তি বাজার
শিল্পাঞ্চল
পণ্যবাজার
সারাদেশ
শেষ পাতা