ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২৩

শতকোটি ডলারের স্টার্টআপে যুক্তরাষ্ট্রকে ছাড়াল চীন

সীমিত মূলধন আর অসীম স্বপ্নএ দুইয়ের একত্রীকরণে যাত্রা হয় যেকোনো স্টার্টআপের। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে কোনো কোনো স্টার্টআপ নিঃস্বেস হয়ে পড়ে। আবার কোনোটি বিনিয়োগকারীদের মনোযোগের কেন্দ্রবিন্দু হয়ে আসে। দ্রুতই ফুলে-ফেঁপে ওঠে। একপর্যায়ে এসব স্টার্টআপের সামগ্রিক মূল্য শতকোটি ডলার ছাড়িয়ে পড়ে। এসব স্টার্টআপকে টেক জগতে ডাকা হয় ‘ইউনিকর্ন’ নামে । ইউনিকর্নের সংখ্যা বিবেচনায় সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রকে পেছনে ফেলে শীর্ষে উঠেছে চীন। যদিও বৈশ্বিক প্রেক্ষাপটে ৮০ শতাংশের বেশি ইউনিকর্ন এ দুটি দেশকে ঘিড়েই। চীনা প্রতিষ্ঠান হুর’ন ইনস্টিটিউটের সাম্প্রতিক এক প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে।

হুর’ন ইনস্টিটিউট বরাবরের মতো এবারো গ্লোবাল ইউনিকর্ন লিস্ট ২০১৯ প্রকাশ করেছে। এই লিস্টে চলতি বছরের ৩০ জুন পর্যন্ত একেকটি স্টার্টআপের মূল্য বিবেচনায় নেয়া হয়েছে এবং জানানো হয়েছে, এগুলোর কার্যক্রম অবশ্যই বেসরকারি পর্যায়ে পরিচালিত হতে হবে। তাতে দেখা গেছে বিশ্বের ২৪টি দেশের ১১৮টি শহরে বিভিন্ন ইউনিকর্নের কার্যক্রম পরিচালিত হয়।

র‍্যাঙ্কিং বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, ২০১৯ সালে চীনে সব মিলিয়ে ২০৬টি শতকোটি ডলারের বেশি মূল্যের স্টার্টআপ রয়েছে। অন্যদিকে যুক্তরাষ্ট্রে এর সংখ্যা ২০৩টি। এই র‍্যাঙ্কিং এর মধ্য দিয়ে প্রথমবারের মতো ইউনিকর্নের সংখ্যা বিবেচনায় যুক্তরাষ্ট্রকে পেছনে ফেলে চীন শীর্ষে পৌঁছেছে বলে জানিয়েছে এএফপি।

তালিকায় তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে দক্ষিণ এশিয়ার ভারত। দেশটির ২১টি স্টার্টআপের মূল্য শতকোটি ডলার এর ঘর ছাড়িয়েছে। ব্রিটেনে এর সংখ্যা ১৩টি। জার্মানি ও ইসরায়েলে মোট সাতটি করে ইউনিকর্ন রয়েছে। দক্ষিণ কোরিয়ায় এর সংখ্যা ছয়টি, ইন্দোনেশিয়ায় পাঁচটি। অঞ্চলভিত্তিক হিসাব করে ইউরোপে সব মিলিয়ে ৩৫টি ইউনিকর্ন রয়েছে। অন্যদিকে বিশ্বব্যাপী সক্রিয় ইউনিকর্নের ৮০ শতাংশই চীন ও যুক্তরাষ্ট্রে।

আরও পড়ুনঃ  গুগল ক্রোম থেকে ব্যক্তিগত তথ্য ডিলিট করবেন যেভাবে

শহরভিত্তিক হিসাব বিবেচনায় সবচেয়ে বেশি ইউনিকর্ন রয়েছে চীনের বেইজিংয়ে। শহরটিতে ইউনিকর্নের সংখ্যা ৮২ টি। তালিকায় এর পরের অবস্থানেই রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের সানফ্রান্সিসকো। এ শহরে ইউনিকর্নের সংখ্যা ৫৫ টি। চীনের সাংহাই ও যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে যথাক্রমে ৪৭ ও ২৫টি শতকোটি ডলারের বেশি মূল্যের স্টার্টআপ পরিচালিত হয়। ভারতের শহরগুলোর মধ্যে প্রথমে রয়েছে বেঙ্গালুরু যার ইউনিকর্ন সংখ্যা ৯টি।

ইউনিকর্নের বৈশ্বিক তালিকায় শীর্ষ অবস্থানে রয়েছে চীনা প্রতিষ্ঠান অ্যান্ট ফিন্যান্সিয়াল। ২০১৪ সালে যাত্রা শুরু করা এ প্রতিষ্ঠানটি অনলাইন পেমেন্ট সার্ভিস ‘আলিপে’ পরিচালনা করে। বর্তমানে অ্যান্ট ফিন্যান্সিয়াল মূল্য ১৫ হাজার কোটি ডলার। এই তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা অ্যাপ নির্মাতা বাইটড্যান্সের মূল্য ৭ হাজার ৫০০ কোটি ডলার। ২০১২ সালে বেইজিংয়ে যাত্রা করা এ স্টার্টআপের অধীনে বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় সোশ্যাল সাইট টিকটক পরিচালিত হয়। তৃতীয় অবস্থানেই রয়েছে চীনের ট্যাক্সি সেবাদাতা স্টার্টআপ দিদি। ২০১২ সালে যাত্রা শুরু করে বর্তমানে এর মূল্য দাঁড়িয়েছে ৫ হাজার ৫০০ কোটি ডলারে।

ভারতীয় স্টার্টআপের মধ্যে ইউনিকর্নের তালিকায় জায়গা পেয়েছে বেঙ্গালুরের পেমেন্ট সলিউশন প্লাটফর্ম ওয়ান৯৭ কমিউনিকেশনস। স্টার্টআপটির বর্তমান মূল্য প্রায় ১ হাজার কোটি ডলার। রয়েছে ট্যাক্সিক্যাব ভাড়া নেয়ার অ্যাপ ওলা ক্যাব। এর বর্তমান মূল্য ৬০০ কোটি ডলার। সমপরিমাণ মূল্য নিয়ে তালিকায় জায়গা করে নিয়েছে ভারতের শিক্ষা খাতের জনপ্রিয় স্টার্টআপ বাইজু।

আনন্দবাজার/শাহী

Print Friendly, PDF & Email

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ই-পেপার
প্রথম পাতা
খবর
অর্থ-বাণিজ্য
শেয়ার বাজার
মতামত
বিশ্ব বাণিজ্য
ক্যারিয়ার
খেলার মাঠ
প্রযুক্তি বাজার
শিল্পাঞ্চল
পণ্যবাজার
সারাদেশ
শেষ পাতা