ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২৩

রোহিঙ্গা ডাকাত সর্দার নূর বন্দুকযুদ্ধে নিহত

কক্সবাজারে মেয়ের কান ফোঁড়ানোর জমকালো অনুষ্ঠান করে আলোচিত রোহিঙ্গা ডাকাত সর্দার নূর মোহাম্মদ পুলিশের সাথে কথিত বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছেন।

পুলিশ জানায়, তিনি টেকনাফের যুবলীগ নেতা ওমর ফারুক হত্যা মামলার প্রধান আসামি ছিলেন।

টেকনাফ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রদীপ কুমার দাশ জানান, ২৭ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বাসিন্দা নূর মোহাম্মদকে গ্রেপ্তারের পর তাকে নিয়ে অভিযানে যায় পুলিশ। এ সময় জাদিমোরা পাহাড়ি এলাকায় তার সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছুঁড়লে পুলিশও পাল্টা গুলি ছোঁড়ে। পরে ঘটনাস্থল থেকে নূর মোহাম্মদের মরদেহ, ৪টি এলজি ও ২০টি কার্তুজ উদ্ধার করা হয়।

তার বিরুদ্ধে হত্যা, গুমসহ একাধিক মামলা রয়েছে বলে জানান ওসি।

তিনি আরও জানান, মোস্ট ওয়ানন্টেড ও যুবলীগ নেতা ওমর ফারুক হত্যা মামলার আসামি নুর মোহাম্মদ বন্দুকযুদ্ধে মারা যাওয়ার খবরে এলাকাবাসী স্বস্তির নিশ্বাস ফেলেছে। মিষ্টি বিতরণ শুরু করেছেন অনেকে।

নিহত নুর মোহাম্মদ (৩৪) ১৯৯২ সালে পালিয়ে বাংলাদেশে এসে জাদিমুড়ায় বসতি স্থাপন করে ধীরে ধীরে সন্ত্রাসী বাহিনী গঠন করে অপরাধকর্ম চালাচ্ছিল। এ পাড়ে আশ্রয় নেওয়ার পর ওপারের রোহিঙ্গাদের নিয়ে তিনি সীমান্তের বিশাল ডাকাত বাহিনী গড়ে তুলেন।

নূর মোহাম্মদের ডাকাত বাহিনী অপহরণ, ডাকাতি, সন্ত্রাসী, ছিনতাই, মানবপাচার এবং সর্বশেষ সীমান্তের একচেটিয়া ইয়াবা চোরাকারবারও হাতে নেয়।

সম্প্রতি টেকনাফের রোহিঙ্গা ডাকাত নূর মোহাম্মদের কিশোরী কন্যার কান ফোঁড়ানো অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথিরা স্বর্ণালংকার, রুপা, অনেকে নগদ টাকা, এমনকি ছাগল নিয়েও এসেছে। তাদের কাছ থেকে পাওয়া গেছে প্রায় এক কেজি স্বর্ণালংকার ও নগদ ৪৫ লাখ টাকাসহ আরও নানা উপহার। ৩০ আগস্ট রাতে এ তথ্য জানিয়েছেন ওসি প্রদীপ কুমার।

Print Friendly, PDF & Email
আরও পড়ুনঃ  মাদক মামলায় ২ জনের কারাদণ্ড

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ই-পেপার
প্রথম পাতা
খবর
অর্থ-বাণিজ্য
শেয়ার বাজার
মতামত
বিশ্ব বাণিজ্য
ক্যারিয়ার
খেলার মাঠ
প্রযুক্তি বাজার
শিল্পাঞ্চল
পণ্যবাজার
সারাদেশ
শেষ পাতা