জানুয়ারি ৩০, ২০২৩

রেলক্রসিংয়ের ৮৫ শতাংশই অরক্ষিত

সারাদেশের রেলক্রসিংয়ের ৮৫ শতাংশই অরক্ষিত। যা আছে সেগুলোর অর্ধেক আবার অবৈধ, বৈধগুলোর সবকটিতে নেই গেটম্যান। এভাবেই সড়কের মাঝখানে গড়ে ওঠা মৃত্যুফাঁদে প্রতিনিয়ত ঘটছে দুর্ঘটনা। লেভেল ক্রসিংগুলোতে প্রয়োজনীয় লোকবল নিয়োগসহ আধুনিক সিগন্যাল ব্যবস্থা চালুর তাগিদ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। বরাবরের মতো প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস মিলেছে রেলওয়ের কাছ থেকে।

সারাদেশে ২ হাজার ৮০০ কিলোমিটার রেল লাইনে ক্রসিং রয়েছে প্রায় আড়াই হাজার। যার মধ্যে বৈধ ক্রসিংয়ের সংখ্যা মাত্র ১৪০০। রেলওয়ে বলছে, চলাচলের সুবিধার্থেই বিভিন্ন সময় স্থানীয়, সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তর, ইউনিয়ন পরিষদ, জেলা পরিষদ, এমন কি বিভিন্ন বেসরকারি প্রতিষ্ঠানও নিজ প্রয়োজনে ক্রসিং বানিয়েছে, যেগুলো সম্পূর্ণ ঝুকিঁপূর্ণ জানিয়ে যোগাযোগ বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এগুলোর কারণে বাড়ছে দুর্ঘটনা।

আবার রেলের বৈধ ক্রসিংগুলোও কোনো কোনো স্থানে মৃত্যুফাঁদে পরিণত হয়েছে। গেটম্যান আছে মাত্র ৪৬৬ টিতে আর গেট ম্যান ছাড়াই চলছে ৯৪৬টি। প্রয়োজনীয় লোকবল নিয়োগের পাশাপাশি আধুনিক সিগন্যালিং ব্যাবস্থার দিকে নজর দেয়ার তাগিদ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

রেল বলছে, অবৈধ ক্রসিংগুলোকে বৈধ করার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। দুর্ঘটনা এড়াতে সাধারণ মানুষকে সচেতন করতে প্রচারণা চালানোর পরামর্শ বিশেষজ্ঞদের।

Print Friendly, PDF & Email
আরও পড়ুনঃ  জাতীয় চিড়িয়াখানা খুলল পাঁচ মাস পর

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ই-পেপার
প্রথম পাতা
খবর
অর্থ-বাণিজ্য
শেয়ার বাজার
মতামত
বিশ্ব বাণিজ্য
ক্যারিয়ার
খেলার মাঠ
প্রযুক্তি বাজার
শিল্পাঞ্চল
পণ্যবাজার
সারাদেশ
শেষ পাতা