ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২৩

ভারত থেকে ২৮ ধাপ এগিয়ে বাংলাদেশ

Numbers of dairy farmers have gathered around a village level milk collection point during morning milk collection session. The gathering not only helps them learn from each on better cow management but also access to key market information

উদীয়মান অর্থনীতির দেশ ভারত দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় অর্থনৈতিকভাবে শাসন করলেও দেশটি থেকে ২৮ ধাপ এগিয়ে রয়েছে বাংলাদেশ। শুধু তাই নয়, প্রতিদ্বন্দ্বী দেশ পাকিস্তান থেকে দেশটি ১৩ ধাপ এগিয়ে রয়েছে। বাংলাদেশের ইতিহাসে ভারত-পাকিস্তানের চাইতে আর কখনোই এত উপরে ওঠতে পারেনি দেশটি। তবে বর্তমান সরকার দায়িত্ব নেওয়ার পর জনগণের জীবনযাত্রার মান বৃদ্ধি পাওয়ায় এ স্বীকৃতি পেল বাংলাদেশ।

ওয়ার্ল্ড ইকোনোমিক ফোরাম (ডব্লিউইএফ)-এর সর্বজনীন উন্নয়ন সূচকে উদীয়মান অর্থনীতির ৭৯টি দেশের তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান ৩৪ তম অবস্থানে। ৩.৯৮ স্কোর নিয়ে বাংলাদেশ এই অবস্থানে ওঠে এসেছে। এ তালিকায় ভারত রয়েছে ৬২তম অবস্থানে। মাত্র ৩.০৯ স্কোর নিয়ে ভারত রয়েছে নিচের দিক থেকে টপ টুয়েন্টিতে। এছাড়া ৩.৫৬ স্কোর নিয়ে পাকিস্তান রয়েছে ৪৭তম অবস্থানে। এ তালিকায় শীর্ষে রয়েছে ইউরোপের দেশ লিথুয়ানিয়া। ৪.৮৬ পয়েন্ট নিয়ে লিথুনিয়া এই অবস্থানে ওঠে এসেছে।

সূচকের মানদণ্ড হিসেবে জনগণের জীবনযাত্রার মান, পরিবেশগত স্থিতিশীলতা ও ঋণ থেকে ভবিষ্যৎ প্রজন্মের সুরক্ষার মতো বিষয়গুলোকে বিবেচনায় আনা হয়েছে।
দ্য ইনক্লুসিভ ডেভেলপমেন্ট ইনডেক্স ২০১৮ শিরোনামের এই সূচকে উন্নত দেশের তালিকায় শীর্ষস্থানে রয়েছে ইউরোপের দেশ নরওয়ে। ৬.০৮ পয়েন্ট নিয়ে নরওয়ে এ তালিকার শীর্ষে অবস্থান করছে। এরপর রয়েছে যথাক্রমে আইসল্যান্ড, লুক্সেমবার্গ, সুইজারল্যান্ড ও ডেনমার্ক। এ তালিকার শীর্ষ দশে থাকা থাকা বাকি দেশগুলো হচ্ছে যথাক্রমে সুইডেন, নেদারল্যান্ডস, আয়ারল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া ও অস্ট্রিয়া। তালিকায় যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থান ২৩ নম্বরে।

অন্যদিকে উদীয়মান অর্থনীতির দেশগুলোর তালিকায় সবার ওপর রয়েছে লিথুয়ানিয়া। এরপর রয়েছে যথাক্রমে হাঙ্গেরি, আজারবাইজান, লাটভিয়া ও পোল্যান্ড। এ তালিকার শীর্ষ দশে থাকা থাকা বাকি দেশগুলো হচ্ছে যথাক্রমে পানামা, ক্রোয়েশিয়া, উরুগুয়ে, চিলি ও রোমানিয়া। সুইজারল্যান্ডের দাভোসে বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরামের (ডব্লিউইএফ) বার্ষিক সম্মেলন শুরুর আগ মুহূর্তে প্রকাশিত এই প্রতিবেদনে সর্বজনীন ও টেকসই উন্নয়নের প্রতি জোর দেওয়া হয়েছে। জরুরিভিত্তিতে সুষম প্রবৃদ্ধির দিকে দৃষ্টি তিতে বিশ্বনেতাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে সংস্থাটি।

আরও পড়ুনঃ  সরিষা ক্ষেতে মৌ চাষ করে লাভবান চাষীরা

সুত্র: ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের ওয়েবসাইট
এমজে/

Print Friendly, PDF & Email

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ই-পেপার
প্রথম পাতা
খবর
অর্থ-বাণিজ্য
শেয়ার বাজার
মতামত
বিশ্ব বাণিজ্য
ক্যারিয়ার
খেলার মাঠ
প্রযুক্তি বাজার
শিল্পাঞ্চল
পণ্যবাজার
সারাদেশ
শেষ পাতা