ভারতের স্বর্ণ আমদানিতে ধস

নভেল করোনাভাইরাসের বৈশ্বিক মহামারির বিরুদ্ধে তুমুল লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে ভারত। সংক্রমণ বিবেচনায় এরই মধ্যে দেশটি বিশ্বের দ্বিতীয় শীর্ষ অবস্থানে পৌঁছেছে। 

আয় কমেছে ভারতীয়দের। স্থবির হয়ে এসেছে দেশটির সামগ্রিক অর্থনীতি। আয় কমায় স্বর্ণ কেনাও কমিয়ে দিয়েছেন ভারতীয়রা।

এর জের ধরে ২০২০-২১ অর্থবছরের প্রথম সাত মাসে (এপ্রিল-অক্টোবর) দেশটিতে মূল্যবান ধাতুটির আমদানি ব্যয় আগের অর্থবছরের একই সময়ের তুলনায় ৪৭ শতাংশ কমে গেছে।

ভারতে ১ এপ্রিল নতুন অর্থবছর শুরু হয়। দেশটির বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্যানুযায়ী, ২০২০-২১ অর্থবছরের এপ্রিল-অক্টোবর সময়ে আন্তর্জাতিক বাজার থেকে স্বর্ণ আমদানিতে ভারতীয় আমদানিকারকদের সর্বমোট ৯২৮ কোটি ডলার ব্যয় হয়েছে।

এক বছরের ব্যবধানে এ ব্যয়ের পরিমাণ কমেছে ৪৭ দশমিক ৪২ শতাংশ। ২০১৯-২০ অর্থবছরের প্রথম সাত মাসে ভারতীয়রা ১ হাজার ৭৬৪ কোটি ডলারের স্বর্ণ আমদানি করেছিলেন।

দেশটির সরকারি তথ্যানুযায়ী, চলতি অর্থবছরের এপ্রিল-অক্টোবর সময়ে আন্তর্জাতিক বাজার থেকে ভারতে রুপা আমদানিতে সম্মিলিত ব্যয় দাঁড়িয়েছে ৭৪ কোটি ২০ লাখ ডলারে, যা আগের অর্থবছরের একই সময়ের তুলনায় ৬৪ দশমিক ৬৫ শতাংশ কম।

চলতি বছর ভারতে মূল্যবান ধাতুটির চাহিদা ১৯৯৫ সালের পর সর্বনিম্ন অবস্থানে নেমে আসতে পারে।

এদিকে ২০২০-২১ অর্থবছরের এপ্রিল-অক্টোবর সময়ে ভারত থেকে ১ হাজার ১৬১ কোটি ডলারের মূল্যবান রত্নপাথর ও জুয়েলারি রফতানি হয়েছে। করোনার কারণে এক বছরের ব্যবধানে এ খাত থেকে দেশটির রফতানি আয় কমেছে ৪৯ দশমিক ৫ শতাংশ।

আনন্দবাজার/ইউএসএস

Print Friendly, PDF & Email

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *