বশেমুরবিপ্রবি’তে যথাযোগ্য মর্যাদায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত

বশেমুরবিপ্রবি’তে যথাযোগ্য মর্যাদায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত
বশেমুরবিপ্রবি’তে যথাযোগ্য মর্যাদায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত

গোপালগঞ্জে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ২০২১ পালিত হয়েছে।

এ উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা নিবেদন, প্রভাত ফেরী, আলোচনা সভা, মসজিদে দোয়া মাহফিল এবং মন্দিরে বিশেষ প্রার্থনার আয়োজন করা হয়। এক প্রেস বিজ্ঞতিতে জনসংযোগ কর্মকর্তা মোঃ মাহবুবুল আলম এ তথ্য জানিয়েছে।

মহান ২১শে প্রথম প্রহরেই ৫২’র ভাষা আন্দোলনে শহীদদের বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন বশেমুরবিপ্রবির উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ কিউ এম মাহবুব। এরপর একে একে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক,শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা, কর্মচারীসহ বিভিন্ন সামাজিক ও রাজনৈতিক সংগঠন পুষ্পস্তবক অর্পণ করে।

এছাড়াও ২১শে ফেব্রয়ারি ২০২১ সকাল ৭টায় প্রভাতফেরিসহ ১০.৩০ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবনে ৫০১নং কক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. এ. কিউ. এম. মাহবুব।

আলোচনা সভায় মূল প্রবন্ধ “ভাষা আন্দোলন ও বঙ্গবন্ধু: প্রেক্ষিত ভাষার অন্তর্জগত” উপস্থাপন করেন ইংরেজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক কাজী মসিউর রহমান।

এছাড়াও আরও বক্তব্য রাখেন জীববিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. এম এ সাত্তার, আইন অনুষদের ডিন মোঃ আবদুল কুদ্দুস মিয়া, প্রক্টর ড. মোঃ রাজিউর রহমান, বাংলা বিভাগের সভাপতি মোঃ আব্দুর রহমান, শিক্ষক সমিতির সভাপতি ড. মোঃ কামরুজ্জামান, প্রচার সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন, অফিসার্স এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মোঃ মিরাজ শিকদার, শিক্ষার্থী সেলিম রেজা প্রমুখ। আলোচনা সভা সঞ্চালনা করেন বাংলা বিভাগের প্রভাষক শামীমা আক্তার।

এসময় সভাপতির বক্তব্য রাখতে গিয়ে ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. এ. কিউ. এম. মাহবুব বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আমাদের একটি রাষ্ট্র উপহার দিয়েছেন এবং বাংলা ভাষাকে রক্ষা করেছেন। বঙ্গবন্ধু বাংলা ভাষাকে শক্তিশালী করার জন্য বাংলা একাডেমি প্রতিষ্ঠা করেছেন। তিনি আরও বলেন দেশের উন্নতি ও ত্বরান্বিত করতে স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঠ্যসূচিতে বাংলা ভাষা চর্চার প্রয়োজন।

প্রবন্ধ উপস্থাপক ইংরেজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক কাজী মসিউর রহমান ভাষা আন্দোলনে বঙ্গবন্ধুর অবদান এবং ভাষার অন্তর্নিহিত বিষয় নিয়ে বিশ্লেষণধর্মী বক্তব্য উপস্থাপন করেন।

জীববিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. এম এ সাত্তার তার বক্তব্যে বলেন, যতদিন বাংলাদেশ থাকবে ততদিন বাংলা ভাষার গুরুত্ব কখনও কমবে না।

আইন অনুষদের ডিন মোঃ আবদুল কুদ্দুস মিয়া বলেন, বাংলা ভাষার মর্যাদা রক্ষার্থে জাতির পিতার নামাঙ্কিত বিশ্ববিদ্যালয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নামে একটি আধুনিক ভাষা ইন্সটিটিউট স্থাপন করা যেতে পারে।

প্রক্টর ড. মোঃ রাজিউর রহমান তার বক্তব্যে মাতৃভাষার মর্যাদা রক্ষায় একটি ভাষা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার আহবান জানান।

বাংলা বিভাগের সভাপতি মোঃ আব্দুর রহমান তার বক্তব্যে ভাষা আন্দোলনের ঐতিহাসিক প্রেক্ষাপট তুলে ধরেন।

শিক্ষক সমিতির সভাপতি ড. কামরুজ্জামান বলেন, বাংলা ভাষার সার্থকতা রক্ষার্থে সামাজিক ও অর্থনৈতিকসহ সকল ক্ষেত্রে বাংলা ভাষার ব্যবহার বাড়াতে হবে।

শিক্ষক সমিতির প্রচার সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন বলেন, বাংলা ভাষার কদর বাড়াতে হলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোকে এগিয়ে আসতে হবে।

অফিসার্স এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মোঃ মিরাজ শিকদার বলেন, আন্দোলনের মাধ্যমে পেয়েছি বাংলা ভাষা, আর বাংলা ভাষার মাধ্যমে পেয়েছি বাংলাদেশ।

শিক্ষার্থী সেলিম রেজা বলেন, ভাষা হোক সবার জন্য উন্মুক্ত। এসময় অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

আনন্দবাজার/শাহী/আকিক

Print Friendly, PDF & Email

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *