ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২৩

প্রধান শিক্ষক ও সহকারী শিক্ষকের বেতন ১১তম এবং ১৩তম গ্রেডে

অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সকল প্রধান শিক্ষক এবং সহকারী শিক্ষকদের বেতন বৈষম্য নিরসন করেছে।

নতুন নির্দেশনায়, এখন থেকে সব প্রধান শিক্ষকের জাতীয় বেতন স্কেল ১১তম গ্রেডে (১২৫০০-৩০২৩০ টাকা) এবং সব সহকারী শিক্ষকের ১৩তম গ্রেডে (১১০০০-২৬৫৯০ টাকা) বেতন দেওয়া হবে। নতুন কাঠামোতে সহকারী শিক্ষকেরা বেতন গ্রেডে একধাপ এগিয়ে গেলেন।

বেতন বৈষম্য নিরসনে জন্য প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ও প্রশিক্ষণবিহীন সহকারী শিক্ষকরা আন্দোলন করে আসছিলেন। সে সময় তারা আসন্ন প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষাও বয়কটের হুমকি দিয়েছিলেন। এরপর বেতন বৈষম্য নিরসনে গত ২৮ অক্টোবর অর্থ মন্ত্রণালয়ে নিকট চিঠি পাঠায় প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়।

গত ৭ নভেম্বর অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগের বাস্তবায়ন অনুবিভাগের বাস্তবায়ন-১ অধিশাখা থেকে এই সংক্রান্ত চিঠি প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিবের কাছে পাঠানো হয়।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. বদরুল হাসান বাবুল বলেন, শিক্ষকদের বেতন বৈষম্য নিরসন করতে অর্থ বিভাগে চিঠি পাঠানো হয়েছিল। অবশেষে অর্থ বিভাগের এই চিঠির পর প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ও প্রশিক্ষণবিহীন প্রধান শিক্ষক ও সহকারী শিক্ষকদের বেতনের কোনো বৈষম্য থাকলো না।

সহকারী শিক্ষকদের মধ্যে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ও প্রশিক্ষণ বিহীনদের ১৩তম গ্রেড হওয়ায় বর্তমান অবস্থায় প্রায় ১২ বছর চাকরি করে এই গ্রেডে আসতো এখন তারা ১২ বছর এগিয়ে থাকলো।

 

আনন্দবাজার/এম.কে

Print Friendly, PDF & Email
আরও পড়ুনঃ  ৪৪তম বিসিএসে শ্রুতি লেখকের আবেদন প্রকৃয়া শুরু

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ই-পেপার
প্রথম পাতা
খবর
অর্থ-বাণিজ্য
শেয়ার বাজার
মতামত
বিশ্ব বাণিজ্য
ক্যারিয়ার
খেলার মাঠ
প্রযুক্তি বাজার
শিল্পাঞ্চল
পণ্যবাজার
সারাদেশ
শেষ পাতা