পুদিনা পাতার বিস্ময়কর উপকারিতা

পুদিনা পাতার বিস্ময়কর উপকারিতা

পবিত্র রমজান মাসে রোজার সুস্থতায় ইফতারে রাখুন পুদিনা পাতা। শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় পুদিনা। এছাড়া গরমেও আরাম দেবে। পুদিনা পাতা যেমন খাবার সুস্বাদু করে তোলে, তেমনি আবার এর অনেক ওষুধি গুণও রয়েছে।

চলুন জেনে নিই পুদিনা পাতার গুণাগুণ সম্পর্কে :

– পুদিনা পাতায় রয়েছে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট এবং ফাইটোনিউট্রিয়েন্টস। যা খুব দ্রুত পেটের যেকোনো সমস্যার সমাধান করতে পারে। যারা হজমের সমস্যা এবং পেটের ব্যথা কিংবা পেটের নানান সমস্যায় ভুগছেন, তারা খাবার খাওয়ার পর ১ কাপ পুদিনা পাতার চা খাওয়ার অভ্যাস করুন। ৬ বা ৭টি তাজা পুদিনা পাতা গরম জলে ফুটিয়ে মধু মিশিয়ে খুব সহজে পুদিনা পাতার চা তৈরি করতে পারেন ঘরের মধ্যেই।

– গরমকালে শরীরকে ঠাণ্ডা রাখে পুদিনার রস। গোসলের আগে পানিতে কিছু পুদিনা পাতা ফেলে রাখুন। সেই পানি দিয়ে গোসল করলে শরীর ও মন চাঙ্গা থাকবে।

– পুদিনা পাতার রস ও অ্যালোভেরার রস একসঙ্গে মিশিয়ে ত্বকে লাগান। এটি রোদে পোড়া ত্বকের জ্বালা কমায়। ১৫ মিনিট রেখে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

– বিজ্ঞানীদের দাবি, পুদিনা পাতা ক্যান্সার প্রতিরোধের ক্ষমতা রাখে। পুদিনা পাতার পেরিলেল অ্যালকোহল যা ফাইটো নিউট্রিয়েন্টসের একটি উপাদান দেহে ক্যান্সারের কোষ বৃদ্ধিতে বাধা প্রদান করে।

– সর্দি হলে নাক বুজে যাওয়া, শ্বাস-প্রশ্বাসের মতো মারাত্মক কষ্ট পান অনেকেই। সেই সময় যদি পুদিনা পাতার রস খান, তাহলে এই কষ্ট থেকে রেহাই পাবেন নিমেষে। যারা অ্যাজমা এবং কাশির সমস্যায় ভোগেন, তাদের তাৎক্ষণিক উপশমে পুদিনা পাতা বেশ কার্যকরী। খুব বেশি নিঃশ্বাসের এবং কাশির সমস্যায় পড়লে পুদিনা পাতা গরম পানিতে ফুটিয়ে সেই পানির ভাপ নিতে পারেন। ভাপ নিতে অসুবিধা হলে গার্গল করার অভ্যাস তৈরি করুন।

আনন্দবাজার/টি এস পি

Print Friendly, PDF & Email

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *