ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২৩

পাকা আমন নিয়ে দুশ্চিন্তায় কৃষকরা

বাংলাদেশের উপকূলীয় অঞ্চলের কৃষকরা আমন নিয়ে দুশ্চিন্তায় পড়েছেন। তাদের আশঙ্কা, বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের কারণে পাকা ধান মাঠেই ঝরে যেতে পারে। এ ঘূর্ণিঝড় মোকাবেলায় স্থানীয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে প্রস্তুতি নেয়া হলেও চিন্তিত উপকূলের কৃষকরা।

কৃষি কর্মকর্তারা বলছেন, ঝড়ো হাওয়ার পাশাপাশি জলোচ্ছ্বাস সৃষ্টি হলে ক্ষয়ক্ষতি বেশি হতে পারে।

এবার উপকূলীয় জেলাগুলোতে ৯০ হাজার হেক্টর জমিতে আমন ধান আবাদ হয়েছে। এর মধ্যে কেবল ১০ হাজার হেক্টর জমির ধান কাটা হয়েছে। ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের প্রভাবে গতকাল জেলায় গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হয়েছে। এ কারণে পাকা ধান কাটতে গিয়ে ভোগান্তি পোহাতে হয়েছে কৃষকদের।

সাতক্ষীরা জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক অরবিন্দ বিশ্বাস বলেন, ঘূর্ণিঝড় বুলবুল আঘাত হানলে আমনের ক্ষতি সবচেয়ে বেশি হতে পারে। কারণ এখন মাঠে পাকা ধান। এ নিয়ে আমরাও দুশ্চিন্তায় আছি।

সাতক্ষীরার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মো. বদিউজ্জামান জানান, ঘূর্ণিঝড় বুলবুল মোকাবেলায় জেলার ১৩৭টি আশ্রয় কেন্দ্র প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

স্থানীয় কৃষক আবুল হোসেন বলেন, আমরা না হয় আশ্রয়কেন্দ্রে গেলাম। কিন্তু ধান তো মাঠে রয়ে গেছে। ঘূর্ণিঝড়ে ধান ঝরে গেলে আমাদের পক্ষে ক্ষতি পুষিয়ে ওঠা সম্ভব নয়।

কৃষি বিভাগ সূত্র জানায়, ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে গতকাল বৃষ্টি হলেও এতে ফসলের তেমন ক্ষতি হবে না। তবে ঝড়ো হাওয়া ও জলোচ্ছ্বাস দেখা দিলে ফসলের ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

আনন্দবাজার/ইউএসএস

Print Friendly, PDF & Email
আরও পড়ুনঃ  কাপ্তাই হ্রদে ব্যাপক ফলন হলেও কৃষকের চোখে বিষাদের ছাঁয়া

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ই-পেপার
প্রথম পাতা
খবর
অর্থ-বাণিজ্য
শেয়ার বাজার
মতামত
বিশ্ব বাণিজ্য
ক্যারিয়ার
খেলার মাঠ
প্রযুক্তি বাজার
শিল্পাঞ্চল
পণ্যবাজার
সারাদেশ
শেষ পাতা