ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২৩

দাম বেড়েছে এলাচের

পেঁয়াজের হঠাৎ লাগামহীন মূল্যবৃদ্ধিতে অস্থির দেশের বাজার। এরমধ্যে পেঁয়াজের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে অন্যান্য ভোগ্যপণ্যের দামও। যার মধ্যে অন্যতম এলাচ। দেশের বড় পাইকারি বাজার নারায়ণগঞ্জের নিতাইগঞ্জে এক সপ্তাহের ব্যবধানে প্রতি কেজি এলাচের দাম বেড়েছে ৫০০ টাকা।

ব্যবসায়ীরা বলছেন, বাজারে চাহিদার তুলনায় সরবরাহ কম থাকায় এলাচের দাম বেড়েছে। শুধু এলাচ নয়, দাম বেড়েছে দারচিনি, জিরাসহ অন্যান্য মসলারও।

গতকাল নিতাইগঞ্জ ও কালির বাজার ঘুরে দেখা যায়, বাজারে ভালো মানের প্রতি কেজি এলাচ পাইকারিতে বিক্রি হচ্ছে ৩ হাজার ৪০০ টাকায়। এক সপ্তাহ আগেও যা বিক্রি হয়েছে ২ হাজার ৯০০ টাকায়।

এর পাশাপাশি দারচিনির দাম ৫০ টাকা পর্যন্ত বেড়ে ৩৫০ টাকা কেজি, জিরা কেজিতে ১০ টাকা পর্যন্ত বেড়ে ২৯০ থেকে ৩০০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। ভালো মানের লবঙ্গের দাম কেজিতে ৫০ টাকা বেড়ে ৭৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। আর কিছুটা নিম্নমানের লবঙ্গ প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৬৫০ টাকায়, যা কিছুদিন আগেও বিক্রি হয়েছে ৬০০ টাকায়।

ব্যবসায়ীরা বলছেন, দেশে ব্যবহূত এলাচের পুরোটা আমদানিনির্ভর। কিন্তু এবার অন্যান্যবারের তুলনায় আমদানি কিছুটা কম হয়েছে। যে কারণে চাহিদার তুলনায় সরবরাহ সংকট দেখা দেয়ায় বাজারে মসলা পণ্যটির দাম বেড়েছে। তবে আমদানি বাড়লে আবারো এলাচের দাম কমে আসবে বলে মনে করেন তারা।

তবে দাম বৃদ্ধির জন্য কিছু ব্যবসায়ী আমদানিকারকদের দুষছেন। তারা মনে করেন, আমদানি কম দেখিয়ে ব্যবসায়ীরা মূলত এলাচের দাম বাড়িয়ে দিয়েছেন। ফলে পাইকারি ব্যবসায়ীরাও বাধ্য হয়ে দাম বাড়াচ্ছেন।

আরও পড়ুনঃ  তিন লাখের বেশি জেলে পাবে ভিজিএফের চাল

ব্যবসায়ীদের দাবি, কয়েক বছর ধরে এলাচসহ সব ধরনের মসলার দাম ক্রেতাদের নাগালেই ছিল। কিন্তু এক সপ্তাহ ধরে এলাচ, জিরা, দারচিনিসহ সব ধরনের মসলার দাম বাড়তে শুরু করেছে।

 

 

আনন্দবাজার/ইউএসএস

Print Friendly, PDF & Email

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ই-পেপার
প্রথম পাতা
খবর
অর্থ-বাণিজ্য
শেয়ার বাজার
মতামত
বিশ্ব বাণিজ্য
ক্যারিয়ার
খেলার মাঠ
প্রযুক্তি বাজার
শিল্পাঞ্চল
পণ্যবাজার
সারাদেশ
শেষ পাতা