ডিসেম্বর ১, ২০২১

চাইলেই ঋণ পাবেন শিক্ষক-শিক্ষিকারা

শিক্ষকতা পেশায় নিয়োজিত পেশাজীবীদের জন্য ব্র্যাক ব্যাংক চালু করেছে বিশেষ পার্সোনাল লোন ‘দিশারী’। এখন বাংলাদেশের যেকোন প্রান্তে যেকোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কর্মরত শিক্ষক-শিক্ষিকাবৃন্দ সহজেই লোন সুবিধা পাবেন।

শুধুমাত্র দেশের শিক্ষক-শিক্ষিকাদের জন্য প্রথমবারের মত চালুকৃত একটি বিশেষ ধরনের লোন প্রোডাক্ট। শিক্ষক-শিক্ষিকাদের জন্য বিশেষায়িত কোন লোন না থাকায় আর্থিক খাত থেকে লোন সুবিধা পেতে প্রায়শই তাঁদের অসুবিধায় পড়তে হয়। এ লোন পেতে কোন জামানতের প্রয়োজন হবে না। খবর বাসসের।

পাঁচ বছরে পরিশোধযোগ্য এ সুবিধার আওতায় সবোর্চ্চ ২০ লাখ টাকা পর্যন্ত লোন নেয়া যাবে। এছাড়া আছে বিশেষইন্টারেস্ট রেট ও দ্রুততম সময়ে প্রসেসিং সুবিধা। যেকোন আর্থিক প্রয়েজন মেটাতে এটি সাহায্য করবে। সরকারি, বেসরকারি, এমপিওভুক্ত স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় ও ব্র্যাক ব্যাংকের তালিকাভুক্ত ইংরেজি মাধ্যম স্কুলের শিক্ষক-শিক্ষিকা মাসে ন্যুনতম ১৭ হাজার টাকা বেতন পেলেই লোনের আবেদন করতে পারবেন। ব্র্যাকের ১৮৭টি শাখা ও ৬০০ টির বেশি এজেন্ট ব্যাংকিং আউটলেট থাকায় শিক্ষকরা দেশের যেকোন প্রান্ত থেকে এ লোনের সুবিধা পাবেন।

‘দিশারী’ সম্পর্কে ব্র্যাক ব্যাংকের হেড অব রিটেইল ব্যাংকিং মো. মাহীয়ুল ইসলাম বলেন, শিক্ষাদানের মত মহৎ পেশায় নিয়োজিত শিক্ষক-শিক্ষিকাদের জন্য ব্র্যাক ব্যাংক এই মহতি উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। মানব সম্পদ উন্নয়নে শিক্ষকদের ভূমিকা অতুলনীয়।একটি জাতির মেধা ও মনন বিকাশে তাঁরা কাজ করেন এবং জাতীয় উন্নয়নে বিশাল অবদান রাখেন। কিন্তু আর্থিক সেবা পেতে তাঁরা অনেক সময় বাধার সম্মুখীন হয়। ব্র্যাক ব্যাংক মূল্যবোধ ভিত্তিক একটি প্রতিষ্ঠান,তাই এই প্রোডাক্ট তৈরির সময় আমরা শিক্ষকদের কথা চিন্তা করেছি।

আরও পড়ুনঃ  বেশি দামে সার বিক্রি করায় ডিলারদের বিরুদ্ধে অভিযোগ

আনন্দবাজার/শহক

Print Friendly, PDF & Email

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আজকের পত্রিকা
ই-পেপার
শেয়ার বাজার
পন্য বাজার