ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২৩

এবার বাড়ছে চালের দাম

পেঁয়াজের লাগামহীন দাম বৃদ্ধির পর এবার নতুন করে বাড়তে শুরু করেছে চালের দামও। ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন, আমন মৌসুমের শেষ সময়ে মিলে ধানের সরবরাহ কমেছে। এ যুক্তিতে চালের দাম বাড়িয়েছেন তারা। গত দুই দিনে কেজিতে ২ থেকে ৬ টাকা পর্যন্ত বৃদ্ধি পেয়েছে চালের দাম।

মিল মালিকরা জানিয়েছেন, মিল গেটে আগে প্রতি বস্তা (৫০ কেজি) ভালো মানের মিনিকেট ১ হাজার ৮৫০ থেকে ১ হাজার ৯০০ টাকা বিক্রি হতো। এখন তা বেড়ে ২ হাজার ১৫০ থেকে ২ হাজার ২০০ টাকা বিক্রি হয়। প্রতি বস্তায় ১০০ থেকে ১৫০ টাকা বৃদ্ধি পেয়েছে বিআর আটাশ চালের দামও। অন্যান্য চালের দামও বস্তায় গড়ে ১০০ টাকা করে বাড়তি রয়েছে।

রাজধানীর পুরান ঢাকার বাবুবাজারের বাদামতলী ও মোহাম্মদপুর কৃষি মার্কেটে পাইকারিতে চালের দাম কেজিতে দুই থেকে ৫ টাকা করে বৃদ্ধি পেয়েছে। আগে পাইকারি বাজারে প্রতি কেজি মিনিকেট চালের দাম ছিল ৩৮ থেকে ৪০ টাকা, যা গতকাল রোববার বিক্রি হয়েছে ৪২ থেকে ৪৫ টাকায়। ২৮ থেকে ২৯ টাকা কেজির বিআর-২৮ ও লতা চাল এখন ৩০ থেকে ৩১ টাকা হয়েছে। এছাড়া ৫০ থেকে ৫২ টাকা কেজি নাজিরশাইল চালের দাম বেড়ে ৫৪ থেকে ৫৬ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

বর্তমানে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন বাজারে মিনিকেট ও বিআর আটাশ চালের প্রচুর চাহিদা থাকায় এই দুই পদের চালের দাম বেশি বাড়িয়েছেন ব্যবসায়ীরা। গতকাল খুচরা বাজারে মানভেদে প্রতি কেজি মিনিকেট চাল ৪৫ থেকে ৪৮ টাকায় বিক্রি হয়, যা আগে ৪০ থেকে ৪২ টাকা ছিল। এছাড়াও বিআর-২৮, লতাসহ অন্যান্য মাঝারি মানের চাল ৩০ থেকে ৩৫ টাকা ছিল, যা এখন খুচরা বাজারে ৩৩ থেকে ৩৮ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। তবে নাজিরশাইল চাল কেজিতে ২ টাকা বেড়ে ৫৬ থেকে ৬০ টাকা দামে বিক্রি হচ্ছে।

আরও পড়ুনঃ  ‘৪-৫ দিনের মধ্যে দেশের সব জেলায় পৌঁছে যাবে টিকা’

আনন্দবাজার/শাহী

Print Friendly, PDF & Email

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ই-পেপার
প্রথম পাতা
খবর
অর্থ-বাণিজ্য
শেয়ার বাজার
মতামত
বিশ্ব বাণিজ্য
ক্যারিয়ার
খেলার মাঠ
প্রযুক্তি বাজার
শিল্পাঞ্চল
পণ্যবাজার
সারাদেশ
শেষ পাতা