নভেম্বর ২৮, ২০২১

এইচএসটিইউ-১ ও এইচএসটিইউ-২ নামে করলার নতুন জাত উদ্ভাবন

করলার নতুন দুই জাত উদ্ভাবন করেছেন হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (হাবিপ্রবি) কৌলিতত্ত্ব ও উদ্ভিদ প্রজনন বিভাগের পিএইচডি গবেষক ফররুখ আহমেদ। জাত দুটির নাম দেওয়া হয়েছে এইচএসটিইউ-১ ও এইচএসটিইউ-২।

নতুন দুটি জাত নিয়ে গবেষণা নিবন্ধ প্রকাশ করেছে প্রধান অতিথি হাবিপ্রবি উপাচার্য ড. এম কামরুজ্জামান।

ফররুখ আহমেদের গবেষণা কার্যক্রমের সুপারভাইজার ছিলেন ড. হাসানুজ্জামান বলেন, বাংলাদেশে করলার একটি জনপ্রিয় জাত রয়েছে। সেটা হলো হাইব্রিড টিয়া করলা। করলার এই জাতটি দিন দিন রোগের প্রতি সংবেদনশীল হয়ে যাচ্ছে। তবে আমরা যে দুটি জাত উদ্ভাবন করেছি সেগুলো রোগপ্রতিরোধী।

তিনি আরও বলেন, আমরা নতুন উদ্ভাবিত দুই জাতের সঙ্গে টিয়া করলার তুলনা করে দেখেছি। আমাদের উদ্ভাবিত নতুন জাতের করলা পরিপুষ্ট হতে ৪২ দিন সময় লাগে কিন্তু আগেরগুলো ৪৬ দিন পর্যন্ত সময় নেয়।

‘করলার গায়ের দাগ বা কাঁটার পরিমাণ তুলনামূলক কম হওয়ার কারণে পরিবহনেও সুবিধা রয়েছে। এর একর প্রতি ফলন ১১.২ টন যা আগের তুলনায় ১.২ টন বেশি। প্রতিটি ফলের দৈর্ঘ্য ২৭ সেন্টিমিটার এবং ফলের ওজন ২৬০ গ্রাম। যা অন্যান্য জাতের তুলনায় বেশি।’

Print Friendly, PDF & Email

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আজকের পত্রিকা
ই-পেপার
শেয়ার বাজার
পন্য বাজার