ফেব্রুয়ারি ১, ২০২৩

আবারো ডাল আমদানি বাড়াচ্ছে ভারত

২০১৮-১৯ অর্থবছরে ডালে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করেছিল ভারত। কিন্তু বছর পেরোতে না পেরোতেই ফের খাদ্যপণ্যটির আমদানি বাড়াতে হচ্ছে দেশটিকে। দেশটিতে বিরাজমান দাবদাহের কারণে মৌসুমি ফসলের বেশ ক্ষতি হয়েছে। সম্প্রতি অসময়ে বৃষ্টিপাতের কারণে দেশটির রবি মৌসুমি ফসল বুননে অনিশ্চয়তা তৈরি হয়েছে। সব মিলিয়ে এবার ভারতে ডাল উৎপাদনে মন্দা ভাব বজায় রয়েছে। যার ফলে ডালের অভ্যন্তরীণ চাহিদা মেটাতে ভারতকে এবার আমদানির ওপর নির্ভর করতে হচ্ছে।

ভারতে কেন্দ্রীয় বাণিজ্য ও শিল্প মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, চলতি অর্থবছরের প্রথম পাঁচ মাসে (এপ্রিল-আগস্ট) দেশটি আন্তর্জাতিক বাজার থেকে এরই মধ্যে ১১ লাখ ২০ হাজার টন ডাল আমদানি করেছে। এর আগের অর্থবছরে আমদানির পরিমাণ ছিল ২৩ লাখ ৭০ হাজার টন। ২০১৭-১৮ ও ২০১৬-১৭ অর্থবছরে ভারতের ডাল আমদানির পরিমাণ ছিল যথাক্রমে ৫৩ লাখ ৭০ হাজার টন ও ৬৩ লাখ ৪০ হাজার টন।

দেশটিতে ডালের বার্ষিক চাহিদা গড়ে ২ কোটি ৬০ লাখ টন। খাতসংশ্লিষ্ট বিশ্লেষকরা ধারণা করছেন, চলতি অর্থবছরে ভারতের ডাল আমদানি আগের অর্থবছরের পরিমাণকে ছাড়িয়ে যেতে পারে। ডালের যথেষ্ট মজুদ থাকা সত্ত্বেও পণ্যটির অভ্যন্তরীণ চাহিদা মেটাতে বিদেশের ওপর নির্ভর করতে হচ্ছে দেশটিকে।

অন্যদিকে এরই মধ্যে ভারতের ডাল উৎপাদন ১৫ লাখ টন থেকে কমে অর্ধেকে নেমে এসেছে বলে জানা যায়। চলতি খরিপ মৌসুমের কয়েকদিনের মধ্যেই দেশের ব্যবসায়ীরা ১ লাখ ৫০ হাজার টন ডাল আমদানি করেছে। আরও জানা যায় মালয়েশিয়া ও পূর্ব আফ্রিকা থেকে ডালের আমদানি করছে ভারত। এছাড়া এসব দেশের কৃষকদের হাতে ভারতে রফতানির জন্য আরো ২ লাখ ৪০ হাজার টন ডাল রয়েছে বলে জানা যায়।

আরও পড়ুনঃ  বেড়েছে দাম কমেছে বিক্রি

আনন্দবাজার/শাহী

Print Friendly, PDF & Email

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ই-পেপার
প্রথম পাতা
খবর
অর্থ-বাণিজ্য
শেয়ার বাজার
মতামত
বিশ্ব বাণিজ্য
ক্যারিয়ার
খেলার মাঠ
প্রযুক্তি বাজার
শিল্পাঞ্চল
পণ্যবাজার
সারাদেশ
শেষ পাতা